২০১৭ সালে ১৮২ কোটি টাকার পরিচালন মুনাফা করেছে এসবিএসি ব্যাংক

অর্থসূচক ডেস্ক

0
57

২০১৭ সালে সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার অ্যান্ড কমার্স (এসবিএসি) ব্যাংক ১৮২ কোটি টাকার পরিচালন মুনাফা করেছে। এসময়ে ব্যাংকটি উল্লেখ্যযোগ্য পরিমাণের আমদানি, রপ্তানি ও রেমিট্যান্সও আহরণ করেছে।

আজ শনিবার রাজধানীর পূর্বাণী হোটেলে অনুষ্ঠিত ব্যাংকটির বার্ষিক ব্যবসায়িক সম্মেলনে এমন তথ্য জানানো হয়।

সম্মেলনে ব্যাংকের আর্থিক সূচক প্রকাশ করা হয়। এতে বলা হয়, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭ পর্যন্ত এসবিএসবি ব্যাংকের আমানতের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ১২ কোটি টাকা, যা গত বছরের তুলনায় ২৩ দশমিক ৫২ শতাংশ বেশি। এসময়ে ব্যাংকের মোট ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৩২৮ কোটি টাকা, যা এর আগের বছরের তুলনায় ৩০ শতাংশ বেশি।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এসবিএসি ব্যাংকের চেয়ারম্যান এস. এম. আমজাদ হোসেন। ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী মো. গোলাম ফারুকের সভাপতিত্ব করেন। এছাড়াও সভায় ব্যাংকের পরিচালক আলহাজ মিজানুর রহমান, মোহাম্মাদ নেওয়াজ, মো. শাখায়াত হোসাইন, স্বতন্ত্র পরিচালক ড. সৈয়দ হাফিজুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এ সময়ে ব্যাংকের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোস্তফা জালাল উদ্দিন আহমেদ, সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ভাইস-প্রেসিডেন্ট মো. গোলাম নবী, মো. কামাল উদ্দিন, শফিউদ্দিন আহমেদ, প্রিন্সিপাল শাখার ব্যবস্থাপক ও সিনিয়র এক্সিউটিভ ভাইস-প্রেসিডেন্ট মো. মামুনুর রশিদ মোল্লাসহ প্রধান কার্যালয়ের সব বিভাগের প্রধান ও শাখা ব্যবস্থাপক উপস্থিত ছিলেন।

এসবিএসি ব্যাংকের চেয়ারম্যান এস. এম. আমজাদ হোসেন প্রধান অতিথির ভাষণে বলেন, ব্যাংক একটি সেবামূলক প্রতিষ্ঠান। এখানে কর্মকর্তাদের নিত্যনতুন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তির সঙ্গে টিকে থাকতে হয়। সে জন্য এ খাতে দক্ষ ও সৎ কর্মকর্তা খুবই প্রয়োজন।

তিনি বলেন, ব্যাংকের প্রধান কার্যালয় থেকে শাখা পর্যন্ত সবধরনের কর্মকর্তাদের সর্বোত্তম গ্রাহক সেবা নিশ্চিত করতে হবে। গ্রাহক সন্তুষ্টি আমাদের সবচেয়ে বড় পুঁজি। সেটাকে কাজে লাগাতে ব্যর্থ হলে আমরা প্রতিযোগিতায় পিছিয়ে পড়বো। তিনি কর্মকর্তাদের করপোরেট সুশাসন নিশ্চিতে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

এস. এম. আমজাদ হোসেন বলেন, অর্থনৈতিক উন্নয়নে বেসরকারি খাত অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, যার বেশিরভাগ অর্থায়ন ব্যাংকগুলো নিশ্চিত করছে।

তিনি বলেন, দেশে অনেক ব্যাংক থাকলেও বেসরকারি খাতের কোনো ব্যাংকই কৃষিভিত্তিক অর্থনীতিকে প্রাধান্য দিচ্ছে না। অথচ বাংলাদেশ কৃষিপ্রধান দেশ এবং জিডিপির বিশাল অংশ এই কৃষি খাত থেকেই আসে। কৃষি ও এসএমই খাতের আরও উন্নয়ন এবং সেই উন্নয়নকে স্থিতিশীল করার জন্য কিভাবে ব্যাংকিং সুবিধা প্রদান করা যায়, সেই লক্ষ্যকে সামনে রেখে এসবিএসি ব্যাংক অগ্রসর হচ্ছে।

ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী মো. গোলাম ফারুক বলেন, চলতি বছরে আমরা ডিজিটাল ব্যাংকিংয়ে সর্বাধিক গুরুত্ব দিচ্ছি। লেনদেন দ্রুত ও বিশ্বস্ততার সঙ্গে নিষ্পন্নে আমরা অনলাইন ব্যাংকিংয়ের এক নতুন দিগন্ত উন্মোচন করতে যাচ্ছি। আমাদের প্রত্যন্ত অঞ্চলের শাখাগুলোতে বসেও গ্রাহকরা দেশের যে কোনো জায়গায় লেনদেন করতে পারছেন। এছাড়া আরটিজিএসের মাধ্যমে শুধু আমাদের ব্যাংক শাখাই নয়, গ্রাহকরা অন্যান্য ব্যাংক শাখার সঙ্গেও লেনদেন করতে পারছে। ব্যাংকে যত রকমের অনলাইন সেবা আছে, আমরা সবগুলো সেবাই গ্রাহকদের দেয়ার চেষ্টা করছি। তিনি আরও জানান, ইতোমধ্যে সারাদেশে বিশ্বমানের প্রযুক্তি নিয়ে ৬৪টি শাখার মাধ্যমে আমরা সেবা দিচ্ছি দেড় লক্ষাধিক বেশি গ্রাহককে।

তিনি চলতি বছরকে ব্যাংকের সাফল্য ও প্রগতির বছর হিসেবে উল্লেখ করেন।

বিজ্ঞপ্তি/এসএম