‘বৃষ্টি ও ঝড়ের ঝুঁকিতে ৫ লাখ রোহিঙ্গা শিশু’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

0
70

আসন্ন ঘূর্ণিঝড় ও মৌসুমী ঋতুতে বাংলাদেশের শরণার্থী শিবিরে আশ্রয় নেওয়া প্রায় ৫ লাখ ২০ হাজারেরও বেশি শিশু মারাত্মক স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তা ঝুঁকিতে পড়বে বলে সতর্ক করেছে ইউনিসেফ। বাংলাদেশে নিযুক্ত ইউনিসেফের প্রতিনিধি এডোয়ার্ড বেইগবিদারের বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম রিলিফওয়েব।

ইউনিসেফের বাংলাদেশ প্রতিনিধি এডোয়ার্ড বেইগবিদার বলেন, সাইক্লোন ও বর্ষাকাল ঘনিয়ে আসায় ইতোমধ্যে সৃষ্ট মাণবিক পরিস্থিতি আরও সংকটের দিকে যাচ্ছে। হাজার হাজার শিশু ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্যে দিনাতিপাত করছে। ঝুঁকির পরিমাণ বৃদ্ধি পাওয়ায় সেখানে বিভিন্ন রোগের প্রাদুর্ভাব, বন্যা, ভূমিধ্বসের মতো ঘটনা ঘটতে পারে। এতে তারা আবারও বিতাড়নের ঝুঁকিতে রয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, অনিরাপদ পানি, অপর্যাপ্ত পয়ো:নিষ্কাশন ব্যবস্থা, দুর্বল দৈহিক স্বাস্থ্যবিধির কারণে কলেরার প্রাদুর্ভাবসহ হেপাটাইটিস বি ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়তে পারে। যার কারণে গর্ভবতী নারী ও তাদের শিশুদের মৃত্যুও হতে পারে। সেখানে জমে থাকা পানিতে ম্যালেরিয়ার জীবাণুবাহী মশার বিস্তারও ঘটতে পারে। শিশুদের এসব রোগ-বালাই থেকে রক্ষা করাকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিতে হবে।’

ছবিটি ইউনিসেফের অফিসিয়াল পেইজ থেকে নেওয়া।

গত ২৫ আগস্ট রাখাইনে  সেনাবাহিনীর সহিংসতায় ৬ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে প্রবেশ করে। জাতিসংঘ এ ঘটনাকে জাতিগত নিধন বলে উল্লেখ করেছে।

উন্নয়ন সংস্থাটি বলছে, পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের মধ্যে অনেক শিশু রয়েছে। নানারকম পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছে তারা। শরণার্থী শিবিরে প্রায় চার হাজার ব্যক্তি ডিপথেরিয়ায় আক্রান্ত। এর মধ্যে ২৪ শিশুসহ ৩২ জন মারা গেছে। ইউনিসেফ ও সহযোগীরা ডিপথেরিয়ার টিকা কার্যক্রম শুরু করেছে। শিশু ও পরিবারগুলোকে নিরাপদ পানি ও স্যানিটেশন সুবিধার আওতায় আনার চেষ্টা করছে তারা। তবে অতিরিক্ত ভীড় ও প্রতিকূল আবহাওয়ার কারণে সেখানে রোগের ঝুঁকি আবারও বেড়ে গেছে।

রিলিফ ওয়েবের প্রতিবেদনে বলা হয়,  রোগের প্রাদুর্ভাবের আশঙ্কার পাশাপাশি মৌসুমী ঋতুতে বন্যা ও ভূমিধসের ঝুঁকি অনেক বেড়ে যাবে। এতে শিশুদের জীবনের সরাসরি ঝুঁকি তৈরি হয়। এমনকি মৌসুমের আগে সামান্য ঝড়ও সেখানে বিপর্যয় ডেকে আনতে পারে। মার্চে মৌসুমী ঋতু শুরু হওয়ার আগে তাই প্রস্তুতির জন্য খু্ব কম সময়ই পাওয়া যাবে বলে মনে করে ইউনিসেফ।

অর্থসূচক/জেডআর