‘উন্নয়ন বজায় রাখতে হলে আগুন সন্ত্রাসীদের রুখতে হবে’

নিজস্ব প্রতিবেদক

0
63

দেশের উন্নয়ন বজায় রাখতে হলে যে কোনোভাবে আগুন সন্ত্রাসীদের রুখতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক।

আজ বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘মুক্তিযুদ্ধোত্তর স্বাধীন বাংলাদেশে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন ও বর্তমান প্রেক্ষিত শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী বলেন, পাকিস্তানে বন্দিদশা থেকে মুক্তি পেয়ে ১৯৭২ সালের এই দিন দুপুর ১টা ৪১ মিনিটে জাতির অবিসংবাদিত নেতা শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীন বাংলাদেশের মাটিতে পা রাখেন। তিনি পাকিস্তান থেকে লন্ডন যান এবং তার পর দিল্লি হয়ে ঢাকায় ফিরে আসেন। দেশে ফিরেই তিনি সবার আগে ছুটে যান দেশের জনগণের কাছে। তৎকালীন রেসকোর্স ময়দানে তিনি জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেন।

বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার সমালচনা করে বলেন, মাননীয় সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া একজন বেয়াদব। কারণ আমি তার বয়সে বড় হয়েও তার নাম নেওয়ার আগে ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী’ কথাটা ব্যবহার করি। কিন্তু তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নাম নেওয়ার সময় ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী’ কথাটা ব্যবহার করে না।

তারা বলে এদেশের আইন অনুযায়ী খলেদা জিয়ার বিচার হবে না। যদি তাই হয় তাহলে তার বিচার করার জন্য পাকিস্তান থেকে আইন নিয়ে আসতে হবে।
বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শেখ ওয়শিউজ্জামান লেলিন বলেন, ১৯৭১ সালে আমরা ৩ লাখ পাকিস্তানি দোসরদের বন্দী করেছিলাম। তাদের জীবনের বিনিময়ে তারা বঙ্গবন্ধুকে ফিরিয়ে দিয়েছে।

আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন সাবেক সংসদ সদস্য ও বিএমএ সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল উদ্দিন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন, হক গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আদম তিমিজি হক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. আসীম সরকারসহ আরো অনেকে।

অর্থসূচক/জেএন/এসএম