পোশাক শ্রমিকদের পরিশ্রমে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে

0
79
garments

garmentsপোশাক শ্রমিকদের পরিশ্রমের ফলে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। তবে সে অনুযায়ী ন্যূনতম মজুরি ও হয়রানি বন্ধ হয়নি বলে অভিযোগ করেন শ্রমিক নেতারা।

বুধবার সকালে মহান স্বাধনিতা দিবস উপলক্ষে তোপখানা রোডের নির্মল সেন মিলনায়তনে সংযুক্ত গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশন আয়োজিত আলোচনা সভায় শ্রমিক নেতারা এই অভিযোগ করেন।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, পোশাকশিল্পে এখন ৪০ লাখের বেশি শ্রমিক কাজ করে। তাদের পরিশ্রমে পোশাকশিল্প প্রধান রপ্তানিমুখী খাতে পরিণত হয়েছে। অথচ শ্রমিকরা পরিশ্রম অনুযায়ী মজুরি পায় না বলে অভিযোগ করেন।

বক্তারা আরও বলেন, দেশের অর্থনীতির বিকাশে শ্রমিকরা এতো বড় অবদান রাখলেও জীবন মানের কোনো পরিবর্তন হচ্ছে না। আর এর জন্য সরকার কিংবা মালিক কেউই কার্যকরিভাবে এগিয়ে আসছে না বলে অভিযোগ তাদের।

পৃথিবীর অন্যান্য দেশে শ্রমিকদের জন্য বাঁচার মত মজুরি রয়েছে। তবে বাংলাদেশের ক্ষেত্রে এর ব্যতিক্রম। এখানে শ্রমিকদের জাতীয়ভাবে বেঁচে থাকার মতো ন্যূনতম মজুরি নির্ধারণ করা হয় না। একইভাবে কর্মক্ষেত্রে শ্রমিকদের নানাভাবে হয়রানি করা হয়। প্রতিনিয়ত-চাকরি ক্ষেত্রে নিরাপত্তাহীনভাবে কাজ করতে হবে বলে জানানো হয়।

তাই সুস্থ্যধারার ট্রেড ইউনিয়ন গড়ে তোলার জন্য সংগঠিত হওয়ার কথা বলা হয়।এই অধিকার-সহ অন্যান্য সুযোগ সুবিধা পেলে শ্রমিকরা কাজের মাধ্যমে দেশ আরো অগ্রগতির দিকে এগিয়ে নিতে আরও ভূমিকা রাখতে পারবে বলে মনে করেন বক্তারা।

আলোচনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক মঈনউদ্দিন মণ্ডল। বক্তব্য রাখেন সংযুক্ত শ্রমিক ফেডারেশনের যুগ্ম সম্পাদক শামসুল আলম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শাহজাহান কবির জহির, মরিয়ম বেগম, সজিব আহমদ, মাহাতাব উদ্দিন, গুলজার হোসেন, নাদিরা বেগম প্রমুখ।

এসইউএম/সাকি