শেখ মুজিবের কোনো যুদ্ধ পরিকল্পনাই ছিল না: তারেক

0
89
তারেক রহমান

তারেক রহমানশেখ মুজিবের কোনো যুদ্ধ পরিকল্পনা ছিল না বলে দাবি করেছেন বাংলাদেশে জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

মঙ্গলবার লন্ডনে মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে যুক্তরাজ্য বিএনপি আয়োজিত ‘বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি ও স্বাধীনতার ঘোষক জিয়াউর রহমান’ শীর্ষক  আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ দাবি করেন।

তারেক রহমান বলেন, স্বাধীনতার ঘোষণা ৭ মার্চ নয়, ২৬ মার্চ ৭ কোটি বাঙ্গালির আকাঙ্ক্ষা অনুযায়ী জিয়াউর রহমানই স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছিলেন।

এ সময় বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত তথ্য ও দলিল উপস্থাপন করে তিনি বলেন, ৭ ই মার্চ কিংবা ২৫শে মার্চ স্বাধীনতার ঘোষণার পক্ষে একটি প্রমাণও আওয়ামী লীগ উপস্থাপন করতে পারেনি। তারেক রহমান ৭১ সালের ৮ ই মার্চে দৈনিক ইত্তেফাকে প্রকাশিত শেখ মুজিবের ৭ই মার্চের ভাষণের রিপোর্টের একটি কপি দেখিয়ে বলেন, ভাষণটি স্বাধীনতা ঘোষণা হলে পত্রিকায় প্রকাশিত হলো না কেন?  আসলে বাস্তবতা হলো ৭ মার্চের ভাষণের পরও শেখ মুজিব তৎকালীন হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে ১৩, ১৭, ১৯,২০,২১, ২৩ এবং ২৪ মার্চ পাকিস্তানিদের সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন। এমনকি বৈঠকে ৪ দফা চুক্তিতেও উপনীত হয়েছিলেন। ৭ মার্চ স্বাধীনতার ঘোষণা হলে, এ ধরনের বৈঠক হতে পারে না।

একই সভায় কার্ডিফ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক প্রফেসর ডক্টর এম এ মালেক বলেন, ১৭ এপ্রিল অস্থায়ী সরকার গঠিত হয়। সেই সরকারের অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি ছিলেন সৈয়দ নজরুল ইসলাম। কিন্তু এর আগে রাষ্ট্রপতি হিসেবে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষণা দেন জিয়াউর রহমান। তিনিই বাংলাদেশের প্রথম প্রেসিডেন্ট।

যুক্তরাজ্য বিএনপি নেতা শায়েস্তা চৌধুরী কুদ্দুসের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ সুপ্রিমকোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার বদরুদ্দোজা বাদল, ব্যারিস্টার এম কায়সার কামাল, বিএনপি‘র আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মাহিদুর রহমান, ইউরোপভিত্তিক প্রবাসী বাংলাদেশিদের সংগঠন সিটিজেন মুভমেন্টের আহবায়ক এম এ মালেক, যুক্তরাজ্য বিএনপি‘র সাবেক সাধারণ সম্পাদক এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন এবং ব্যারিস্টার এম এ সালাম এবং শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিদ্যালয়ের সাবেক সহকারী প্রফেসর ড. মুজিবুর রহমান।

এমআর