চীনে নিখোঁজ বিমানযাত্রীদের স্বজনদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষ

0
60
clash in china

clash in chinaচীনের রাজধানী বেইজিংয়ে পুলিশের সাথে নিখোঁজ মালয়েশিয়ান বিমানের যাত্রীদের স্বজনদের সাথে সংঘর্ষের খবর পাওয়া গেছে। নিখোঁজ বিমান সম্পর্কে সঠিক তথ্য সরবরাহেরর দাবিতে মঙ্গলবার বিক্ষুদ্ধ স্বজনরা মালয়েশিয়ান দূতাবাস ঘেরাও করে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করলেও এই সংঘর্ষ বাধে। তবে এই ঘটনায় কেউ আহত হয়েছে কিনা সেই খবর জানা যায় নি। খবর বিবিসির।

গত ৮ই মার্চ মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুর থেকে বেইজিং যাওয়ার পথে নিখোঁজ হয় মালয়েশিয়ান এয়ারলাইন্সের এমএইচ ৩৭০ বিমানটি।

কিন্তু নিখোঁজের দুই সপ্তাহ পার হয়ে গেলেও বাংলাদেশসহ ২৬টি দেশের যৌথ প্রচেষ্টার পরেও বিমান সম্পর্কে নিশ্চিত কোন তথ্য এখনও পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। এরই প্রেক্ষিতে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজ্জাক ঘোষণা দেন যে, ২৩৯ যাত্রীসহ প্রশান্ত মহাসাগরেই সলিল সমাধি ঘটেছে বিমানটির। এইসব যাত্রীদের মধ্যে ১৫৩ জনই চীনের নাগরিক। তিনি আরও জানান, যুক্তরাজ্যের অ্যাভিয়েশন কর্তৃপক্ষের সরবরাহকৃত তথ্যের ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছে মালয়েশিয়ার সরকার।

এই ঘোষণার পরপরই নিখোঁজ চীনা যাত্রীদের স্বজনরা বিক্ষোভে ফেটে পড়েন এবং সঠিক তথ্যের দাবিতে বেইজিংয়ে অবস্থিত মালয়েশিয়ান দূতাবাস ঘেরাও করন। এসময় তারা মালয়েশিয়ান রাষ্ট্রদূতের সাথে দেখা করতে চাইলে পুলিশ বাধা দেয়। পরবর্তীতে তারা দূতাবাসের বোতল উদ্দেশ্যে ছুঁড়ে মারলে পুলিশের সাথে সংঘর্ষ বেঁধে যায়।

বিক্ষুদ্ধ স্বজনদের অভিযোগ, মালয়েশিয়ার সরকার উদ্দেশ্যপ্রণেদিত উদ্ধার কাজে দেরি করছে এবং রাজনৈতিক কারণে ভূল তথ্য সরবরাহ করেছে।

এদিকে অস্ট্রেলিয়ান সরকার জানিয়েছে, বিরূপ আবহাওয়ার কারণে প্রশান্ত মহাসাগরে সনাক্তকৃত বিমানের সম্ভাব্য  ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার কাজ স্থগিত করা হয়েছে। আবহাওয়া স্বাভাবিক হলেও উদ্ধার কাজ আবার শুরু হবে।