লাশের সাথে সাত বছর সংসার!

0
65
south korea

south koreaমরণেও ম্লান হয় না ভালোবাসা। তাই ভালোবাসার টানে মৃত স্বামীর সঙ্গে সহমরণে যেতে পিছপা হননি অসংখ্য ভারতীয় নারী। আবার কেউ বৈধব্যকেই ব্রত হিসেবে গ্রহণ করেছেন, এমনকি অবিবাহিতদের অনেকেই জীবনে আর বিয়েই করেননি। কিন্তু মৃত স্বামীর লাশ নিয়ে সংসার যাপনের কথা আজ পর্যন্ত শোনা যায়নি। সম্প্রতি এমনই এক আজব সংসারের সন্ধান পাওয়া গেছে দক্ষিণ কোরিয়ায়। বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, মৃত স্বামীর লাশ সাথে নিয়ে সাত বছর ধরে সংসার করছেন দেশটির রাজধানী সিউলে বসবাসরত এক নারী।

ভদ্র মহিলার নাম চো। ৪৭ বছর বয়সি ফার্মাসিস্ট চো-র স্বামী ক্যানসারে ভুগে ২০০৭ সালে মারা যান। কিন্তু চো তাঁর স্বামীর মৃতদেহের সৎকার না করে নিয়ে আসেন নিজের অ্যাপার্টমেন্টে।

ফার্মাসিস্ট হওয়ার সুবাদে চো জানতেন কোন ওষুধের কার্যকারিতা কেমন। তাছাড়া নিজের একটা ওষুধের দোকানও আছে দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সিউলে। কাজের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে মিশরীয়দের মতো ‘মমি’ করে স্বামীর দেহটাকে নিজের ঘরেই রেখে দিয়েছিলেন তিনি। এরপর থেকেই সবার অজান্তে স্বামীর সাথে দিব্যি সংসার করছেন তিনি।

পরিচয় গোপন রেখে চো’র এক প্রতিবেশি গত ডিসেম্বরেই পুলিশকে জানিয়েছিলেন, সিউলের এক অ্যাপার্টমেন্টে এই মহিলা তার মৃত স্বামীর সঙ্গে বসবাস করছেন। খবর পেয়ে পুলিশ তদন্ত করে এর সত্যতা খুজে পায়।

সাত বছর পরও মৃতদেহ পুরোপুরি স্বাভাবিক অবস্থায় দেখে পুলিশও অবাক। পুলিশের এক কর্মকর্তা এএফপিকে বলেন, কীভাবে এটা সম্ভব হলো তা আমরা বুঝতে পারছি না।

সিউল পুলিশ জানিয়েছে, চো’কে এখনও গ্রেপ্তার করা হয়নি। তবে তদন্ত শেষে মৃতদেহ সৎকার করার আইন লঙ্ঘনের অপরাধে তার শাস্তি হতে পারে।

এমআর