নিজামীর রায় যেকোনো দিন

0
70

nijami.mজামায়াত নেতা নিজামীর বিরুদ্ধে মানবতা বিরোধী অপরাধের মামলার রায় যেকোনো দিন ঘোষিত  হবে। সোমবার আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ এ মামলার শুনানি শেষে বিচারপতি ও ট্রাইব্যুনাল চেয়ারম্যান এম এনায়েতুর রহিম এ কথা জানান ।

এর আগে রোববার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বে ট্রাইব্যুনাল-১-এ পঞ্চম ও শেষ দিনে আসামিপক্ষের আইনজীবী তাজুল ইসলাম তার আইনি পয়েন্টে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ করেন। পরে প্রসিকিউটর মোহাম্মদ আলী পাল্টা যুক্তি উপস্থাপন শুরু করেন।

গত ১০ মার্চ রাষ্ট্রপক্ষে প্রসিকিউটর মোহাম্মদ আলী,ড. তুরিন আফরোজ ও সৈয়দ হায়দার আলী যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করেন। এরপর আসামিপক্ষে মিজানুল ইসলাম ও তাজুল ইসলাম যুক্তি উপস্থাপন করেন। এ নিয়ে জামায়াত নেতা নিজামীর মামলায় দ্বিতীয়বারের মতো যুক্তি উপস্থাপন করা হয়।

গত বছরের ২০ নভেম্বর এ মামলায় যুক্তি উপস্থাপন শেষে যে কোনো দিন রায়ের জন্য অপেক্ষমাণ রাখা হয়। এরপর ৩১ ডিসেম্বর ট্রাইব্যুনাল-১-এর চেয়ারম্যান বিচারপতি এটিএম ফজলে কবির অবসরে যান।

২৪ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্টের বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমকে ট্রাইব্যুনাল-১-এর চেয়ারম্যান পদে নিয়োগ দেয় সরকার। ২৬ ফেব্রুয়ারি নবনিযুক্ত চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে ট্রাইব্যুনাল-১-এর বিচারিক কার্যক্রম পুনরায় শুরু হয়।

২০১০ সালের ২৯ জুন মতিউর রহমান নিজামীকে একটি মামলায় গ্রেপ্তার করার পর একই বছরের ২ আগস্ট তাকে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

এরপর গত বছর ১১ ডিসেম্বর জামায়াতের আমিরের বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ উপস্থাপন করে ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউশন। ২৮ ডিসেম্বর আদালত অভিযোগ আমলে নেয়।

উল্লেখ্য, এর আগে গত বছরের ২৮ মে নিজামীর বিরুদ্ধে বুদ্ধিজীবী হত্যাসহ মানবতাবিরোধী অপরাধের ১৬টি মামলার অভিযোগে অভিযোগ গঠন করা হয়। এসব মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের ২৬ জন সাক্ষী ট্রাইব্যুনালে সাক্ষ্য দিয়েছেন।