বাংলাদেশে যাত্রা শুরু করলো ‘টিআইই’

0
71

TIEবিশ্বের উদ্যোক্তাদের শীর্ষ স্থানীয় সংগঠন ‘দ্যা ইন্দাস এন্টারপ্রেনিয়ার্স’ (টিআইই) বাংলাদেশে তাদের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু করেছে।

শনিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে প্রধান অতিথি হিসেবে বিশ্বের বৃহত্তম এ অলাভজনক সেচ্ছাসেবী সংগঠনটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের ডেপুটি চিফ অব মিশন জন ড্যানিলোইজ ও মেট্র্রোপলিটন চেম্বর অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ড্রাস্ট্রির সভাপতি রোকেয়া আফজাল রহমান, টিআইই ঢাকার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সোনিয়া বশির কবির ও সহ সভাপতি শামীম আহসান প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইনু বলেন, বাংলাদেশসহ এশিয়াতে এই  মুহুর্তে একটি লড়াই চলছে। আর তা হলো অসম্প্রদায়িক, গণতান্ত্রিক বনাম জঙ্গীবাদ, মৌলবাদি রাজনীতির লড়াই। এর মধ্যেই ব্যবসার উপযুক্ত পরিবেশ খুঁজে নিতে হবে এবং ব্যবসা চালিয়ে যেতে হবে। নতুন উদ্যোক্তাদের ব্যবসা শুরুর প্রথম পর্যায়টা ভালভাবে শুরু করতে হবে। আর শুরু ভাল হলে ব্যবসাও ভাল চলবে বলে জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, দেশে দারিদ্রতা, প্রাকৃতিক দুর্যোগ, লিঙ্গ বৈষম্য ও জঙ্গীবাদের মতো সমস্যা থাকা সত্বেও দেশ এগিয়ে চলেছে। আর দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে দরিদ্র কৃষক, নারী শ্রমিক, প্রবাসি বাংলাদেশি যারা কষ্টে অর্জিত রেমিটেন্স দেশে পাঠাচ্ছে এই ধরণের আটটি গোষ্ঠী।

ইনু বলেন, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্রের উত্থানের পর এই মুহুর্তে পৃথিবী বাকিদের উত্থানের জন্য অপেক্ষা করছে। এ কাতারে আছে চীন, রাশিয়া, জাপান এবং ব্রাজিল। গোল্ড ম্যান স্যাক্স এর কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, আগামি কয়েক বছরের মধ্যে বাংলাদেশ বিশ্বের ২২ তম অর্থনৈতিক দেশ হিসেবে নাম লেখাবে।

টিআইই ঢাকার সভাপতি সোনিয়া বশির কবির অনুষ্ঠানে টিআইই এর পরিচিতি তুলে ধরে বলেন, বিশ্বের বৃহত্তম অলাভজনক সেচ্ছাসেবী সংগঠন এটি। যা বিশ্বের উদ্যোক্তাদের জন্য কাজ করে। বাংলাদেশে আমার পেশাজীবী ও ব্যবসায়ীদেও নিয়ে সংগঠনটির যাত্রা শুরু করেছি। যারা নতুন প্রজন্মের উদ্যোক্তাদের এগিয়ে নিতে সহায়তা দেবে।

এসএই/