ইউনূসকে জাতীয়ভাবে হেয় করা হয়েছে: আকবর আলী

0
69
Akbor Ali

Akbor Aliড. মুহম্মদ ইউনূস নোবেল বিজয়ী হলেও বাংলাদেশের মানুষ তাকে সঠিকভাবে মূল্যায়ন করেনি। তাকে জাতীয়ভাবে হেয় করা হয়েছে।

শনিবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘লেখালেখি সাহিত্য পুরস্কার’ অনুষ্ঠানে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ও অর্থনীতিবিদ ড.আকবর আলী খান এসব কথা বলেন।

আকবর আলী খান বলেন, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর নোবেল পাওয়ার পর সবাই তাকে সংবর্ধনা দিতে গেলে সবার উদ্দেশ্যে তিনি বলেছিলেন, পুরস্কার পাওয়ার আগে কেউ আমাকে মূল্যায়ন করেনি। একই ঘঠনা ঘটেছে নোবেল বিজয়ী ড. ইউনূসের ক্ষেত্রেও।

জ্ঞানীদের মৃত্যুর পর সর্বত্র মূল্যায়ন করা হয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, জীবিত থাকাকালে জ্ঞানীদের অবদানের বিনিময়ে পুরষ্কৃত করা হলে তারা যেমনি খুশি হতো তেমনি করে তাদের অনেক অনুরাগী তৈরি হতো।

সাহিত্যে পুরস্কার প্রদান প্রসঙ্গে আকবর আলী বলেন, লেখালেখিতে উৎসাহ দেওয়ার জন্য পুরস্কার দুই একবার দেওয়ার পর তা বন্ধ হয়ে যায়। এর ফলে কবি-লেখকরা নিরুৎসাহিত হয়। কিন্ত এর ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখলে নতুন লেখার প্রতি কবি-সাহিত্যিকরা অনুপ্রেরণা পেত।

এ সময় তিনি কবি আল মাহমুদকে বর্তমান সময়ের মহান কবি হিসেবে আখ্যায়িত করে তার শত বছরের দীর্ঘায়ু কামনা করেন।

অনুষ্ঠানে কবি আল মাহমুদ বলেন, সাহিত্য মানুষকে চিন্তাশীল এবং বিবেকবান করে তোলে। দেশকে এগিয়ে নিতে সবাইকে সুষ্ঠু ধারার সাহিত্য চর্চা করতে হবে।

এ সময় বুদ্ধিজীবীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনারা বিজ্ঞানী, প্রকৌশলী, বুদ্ধিজীবী তবু আপনারা দেশকে স্বপ্ন দেখাতে পারবেন না। কিন্তু আমি কবি আমি দেশকে স্বপ্ন দেখাতে পারবো।

অনুষ্ঠানে আল মাহমুদের পোড়ামাটির জোড়া হাঁস উপন্যাস ও তার সাহিত্য কর্মের সার্বিক অবদানের জন্য তাকে লেখালেখি সাহিত্য পুরস্কার-২০১৪ সম্মাননা ও নগদ পঞ্চাশ হাজার টাকা প্রদান করা হয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি অধ্যাপক এমাজ উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন, ড. মাহমুদ শাহ কৌরেশী, কবি কেজি মোস্তফা, কবি আসাদ চৌধুরী, কবি মো. নুরুল হুদা প্রমুখ।

জেইউ/এএস