গেল সপ্তাহে দশ কোম্পানির লভ্যাংশ ঘোষণা

0
62
10 company

10 companyসমাপ্ত সপ্তাহে ব্যাংক, বিমা, ব্যাংক বহির্ভূত অর্থিক প্রতিষ্ঠান, সেবা খাতসহ দশটি কোম্পানি লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৩ সমাপ্ত বছরের জন্য এ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

প্রতিষ্ঠানগুলো হলো-আইএফআইসি ব্যাংক, ঢাকা ব্যাংক, ফার্স্ট লিজ, আইপিডিসি ফিন্যান্স, রিপাবলিক, গ্লোবাল ইন্স্যুরেন্স, পাইওনিয়ার ইন্স্যুরেন্স,বার্জার পেইন্টস,সামিট অ্যালায়েন্স এবং লিন্ডে বিডি।

আইএফআইসি ব্যাংক: আইএফআইসি ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদ শেয়াহোল্ডারদের জন্য ১৫ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে।

এই সংক্রান্ত বার্ষিক সাধারণ সভা বা এজিএম অনুষ্ঠিত হবে আগামি ৭ জুন। এর জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ২৪ এপ্রিল।

ঢাকা ব্যাংক: ঢাকা ব্যাংক লিমিটেডের পরিচালনা পর্ষদ শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ২২ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। এর মধ্যে ১৭ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ। বাকী ৫ শতাংশ বোনাস।

সমাপ্ত বছরে ব্যাংকটি শেয়ার প্রতি আয় বা ইপিএস হয়েছে তিন টাকা ৪৫ পয়সা। আগের বছর ব্যাংকটি ১৬ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ দিয়েছিলো। ওই বছর শেষে শেয়ার প্রতি আয় বা ইপিএস করেছিল এক টাকা ৬৯ পয়সা।

ফার্স্ট লিজ ফিন্যান্স: ফার্স্ট লিজ ফিন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেডের পরিচালনা পর্ষদ শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ১০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে।

কোম্পানি সমাপ্ত বছরে শেয়ার প্রতি আয় বা ইপিএস করেছে এক টাকা ৩২ পয়সা। বছর শেষে শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য বা এনএভি দাঁড়িয়েছে ১৪ টাকা ২৭ পয়সা। আলোচিত বছরে শেয়ার প্রতি ক্যাশ ফ্লো ছিল ২ টাকা ২৬ পয়সা।

এই সংক্রান্ত বার্ষিক সাধারণ সভা বা এজিএম আগামি  ৮ মে অনুষ্ঠিত হবে। এর জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ৩১ মার্চ।

আইপিডিসি: আর্থিক খাতের আইপিডিসির পরিচালনা পর্ষদ শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ১৫ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। এর মধ্যে ৫ শতাংশ নগদ ও ১০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ। কোম্পানি সমাপ্ত বছরে শেয়ার প্রতি আয় বা ইপিএস করেছে এক টাকা ৩৬ পয়সা।

এই সংক্রান্ত বার্ষিক সাধারণ সভা বা এজিএম আগামি ১৫ মে। এর জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ২৭ মার্চ।

রিপাবলিক:বিমা খাতের কোম্পানি রিপাবলিক ইন্স্যুরেন্স লিমিটেডের পরিচালনা পর্ষদ শেয়ারহোল্ডারদের জন্য সাড়ে ১২ শতাংশ বোনাস  লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে।

কোম্পানিটির সমাপ্ত বছরে শেয়ার প্রতি আয় বা ইপিএস করেছে দুই টাকা ৭৬ পয়সা।

এই সংক্রান্ত বার্ষিক সাধারণ সভা বা এজিএম আগামি ১৬ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হবে। এর জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ৩১ মার্চ।

উল্লেখ্য কোম্পানিটি ২০১২ সালে শেয়ারহোল্ডারদেরকে ১২ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ দিয়েছিল। একই বছরে শেষে শেয়ার প্রতি আয় করেছিল ২ টাকা ৪০ পয়সা। নয় মাসে শেয়ার প্রতি আয় করেছিল ২ টাকা ১৬ পয়সা।

গ্লোবাল ইন্স্যুরেন্স: গ্লোবাল ইন্স্যুরেন্সের পরিচালনা পর্ষদ শেয়ার হোল্ডারদের জন্য ১০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশের ঘোষণা দিয়েছে। কোম্পানির হিসেব অনুসারে সমাপ্ত বছরে শেয়ার প্রতি আয় বা ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ৯ পয়সা।

এই সংক্রান্ত বার্ষিক সাধারণ সভা বা এজিএম অনুষ্ঠিত হবে আগামি ১৭ মে। এর জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ৭ এপ্রিল।

পাইওনিয়ার ইন্স্যুরেন্স: পাইওনিয়ার ইন্স্যুরেন্স শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ৩০ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। এর মধ্যে ২০ শতাংশ বোনাস এবং ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ।

সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় বা ইপিএস হয়েছে তিন টাকা দুই পয়সা।

এই সংক্রান্ত বার্ষিক সাধারণ সভা বা এজিএম অনুষ্ঠিত হবে আগামি ১৮ মে। এর জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ৩১ মার্চ।

উল্লেখ্, কোম্পানিটি ২০১২ সালেও শেয়ারহোল্ডারদেরকে ৩০ শতাংশ লভ্যাংশ প্রদান করেছিল। এর মধ্যে ১০ শতাংশ নগদ এবং ২০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ। একই বছরে শেষে শেয়ার প্রতি আয় করেছিল ৩ টাকা ৭৩ পয়সা।

সামিট অ্যালায়েন্স: সেবা ও আবাসন খাতের সামিট অ্যালায়েন্স র্পোট লিমিটেডের পরিচালনা পর্ষদ শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ১৫ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে।

সমাপ্ত বছরে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় বা ইপিএস করেছে ৮৮ পয়সা। এ সংক্রান্ত বার্ষিক সাধারণ সভা বা এজিএম আগামি ১১ মে অনুষ্ঠিত হবে। এর জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ৩১ মার্চ।

উল্লেখ্য কোম্পানিটি ২০১২ সালে শেয়ারহোল্ডারদেরকে ২০ শতাংশ লভ্যাংশ প্রদান করেছিল। এর মধ্যে ১০ শতাংশ নগদ এবং ১০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ। একই বছরে শেষে শেয়ার প্রতি আয় করেছিল এক টাকা ৩৫ পয়সা।

বার্জার পেইন্টস: বিবিধ খাতের বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশ লিমিটেডের পরিচালনা পর্ষদ শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ২২০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। কোম্পানির সমাপ্ত বছরে শেয়ার প্রতি আয় বা ইপিএস হয়েছে ৩৭ টাকা ১৩ পয়সা। কোম্পানির বার্ষিক সাধারণ সভা বা এজিএম অনুষ্ঠিত হবে আগামি ২০ এপ্রিল। এর জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ৩০ মার্চ।

২০১২ সালে এই কোম্পানি শেয়ারহোল্ডারদেরকে ১৮০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছিলো। সমাপ্ত বছরে শেয়ার প্রতি আয় হয়েছিল ৩২ টাকা ৪৬ পয়সা।

লিন্ড বিডি: লিন্ড বিডির পরিচালনা পর্ষদ শেয়াহোল্ডারদের জন্য ১১০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। তবে প্রতিষ্ঠানটি অন্তবর্তী কালীন আরও ২০০ শতাংশ লভ্যাংশ দিয়েছিল।

এই সংক্রান্ত বার্ষিক সাধারণ সভা বা এজিএম অনুষ্ঠিত হবে আগামি ৮ মে। এর জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ৩ মার্চ।

অর্থসূচক/জিইউ/এমআরবি/