‘সরকার চাইলেই সুষ্ঠু নির্বাচন’

নিজস্ব প্রতিবেদক

0
76

একমাত্র সরকার চাইলেই আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু ও অবাধ করার সম্ভব। আর সব দলের অংশগ্রহণও নিশ্চিত করা যাবে বলে মনে করছেন বিশিষ্টজনেরা।

আজ শনিবার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে ঢাকা ফোরাম  আয়োজিত ‘বাংলাদেশের নির্বাচন ও গণতন্ত্র’ শীর্ষক গোলটেবিল আলোচনায় বক্তারা এ মন্তব্য করেন।

ঢাকা ফোরামের সভাপতি ও বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর সালেহউদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশ নেন- সাবেক নির্বাচন কমিশনার এটিএম শামছুল হুদা, সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা মইনুল হোসেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা এম হাফিজউদ্দিন খান, সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান চৌধুরী, সাবেক মন্ত্রিপরিষদ সচিব আলী ইমাম মজুমদার, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস অধ্যাপক এ এফ সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক দিলারা প্রমুখ।

এম হাফিজউদ্দিন খান বলেন, সরকার চাইলেই সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব। সরকার না চাইলে সুষ্ঠু হবে না। আর সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য অন্তর্বর্তীকালীন সরকার গঠন করতে হবে। যাতে সরকারের হস্তক্ষেপ থাকবে না। প্রয়োজনে সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে।

অধ্যাপক এ এফ সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠিত করতে সবার আগে প্রধানমন্ত্রীর সদিচ্ছা প্রয়োজন। তার সদিচ্ছা ছাড়া সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব না।

এটিএম শামছুল হুদা বলেন, সরকারকেই সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি করতে হবে। সব দলকে এ ব্যাপারে সোচ্চার হতে হবে। আর নির্বাচনে সব দলকে অংশ নিতে হবে। দলগুলোকে নির্বাচন বয়কট থেকে বেরিয়ে আসতে হবে।

সালেহউদ্দিন আহমেদ বলেন, দেশের অর্থনীতি ও সংস্কৃতির উন্নয়নে সুশাসন ও সুষ্ঠু নির্বাচন নিশ্চিত করতে হবে।

অর্থসূচক/আজম/এস