আগের ম্যাচের হারের মতই জয় জিম্বাবুয়ের

0
41

181933জয়ের প্রয়োজন ২ বলে ১ রান ,  আর সময়ই এক রান নিতে গিয়ে আউট জিম্বাবুয়ের শন উইলিয়ামস। ফলে শেষ বলে টান টান উত্তেজনা। কিন্তু নতুন ব্যাটসম্যান ভুসি সিবান্দা সব উত্তেজনা উড়িয়ে দিলেন আহসান মালিকের বলে ছক্কা মেরে। ফলে ৫ উইকেটের জয় নিয়ে সুপার টেন পর্বে ওঠার লড়াইয়ে টিকে থাকলো তারা। আর জিম্বাবুয়ের  আগের ম্যাচে একই ভাবে শেষ দুই বলে ১ রান দরকার ছিল আয়ারল্যান্ডের। সে ম্যাচেও পঞ্চম বলে রান আউট হয় আয়ার‌্ল্যান্ডের জয়সি। তবে শেষ বলের কল্যাণে নাটকীয় ভাবে হারে জিম্বাবুয়ে।

এর আগে ১৯তম ওভারের প্রথম বলেই  ডাচ পেসার ফন ডার গটেন ৩৯ বলে ২ চার ও ১ ছক্কায় ৪৯ রানের ধৈর্য্যশীল ইনিংস খেলা জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক ব্রেন্ডন টেলরকে সাজঘরে ফেরান। ফলে ৩৯ রানের চতুর্থ উইকেট জুটিটি শেষ হয়। তারও আগে ইনিংসের ১৪তম ওভারে জোড়া আঘাত হানেন পিটার সিলার। মাত্র ১ বলের ব্যবধানে তিনি ফেরান ৪৩ রান করা হ্যামিলটন মাসাকাদজা ও কোন রান না করা এলটন চিগুম্বুরাকে। ফলে ৮৭ রানেই ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলে জিম্বাবুয়ে।

ডাচদের ছুড়ে দেয়া ১৪১ রানের মামুলি লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে অতি সতর্ক ব্যাটিং করে জিম্বাবুয়ে। উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান সিকান্দার রাজা ১২ বলে ১৩ রান করে সাজঘরে ফেরেন পঞ্চম ওভারে। এরপর মাসাকাদজার সঙ্গে যোগ দেন অধিনায়ক ব্রেন্ডন টেলর। তবে সাবধানী ব্যাটিং করে তারা লক্ষ্যকে অনেকটাই দুরুহ করে ফেলেন। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে এ দুজন মূল্যবান ৬২ রান যোগ করেন।

নেদারল্যান্ডসের পক্ষে পিটারসিলার ২ ওভারে মাত্র ৯ রানে ২ উইকেট নেন। এছাড়াও ফন ডার গটেন ২২ রানে এবং আহসান মালিক ৩০ রানে একটি করে উইকেট নেন। জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক ব্রেন্ডন টেলর দায়িত্বশীল ইনিংসটির জন্য ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় মনোনীত হন।

এর আগে টম কুপারের লড়াকু ব্যাটিং সত্ত্বেও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে নেদারল্যান্ডস নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেটে ১৪০ রানের সাদামাটা ইনিংস গড়তে সক্ষম হয়। ফলে জয়ের জন্য জিম্বাবুয়ের লক্ষ্য দাঁড়ায় ১৪১ রান। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে নিজেদের যথাযথভাবে মেলে ধরতে পারেনি নেদারল্যান্ডসের ব্যাটসম্যানরা। ব্যতিক্রম ছিলেন কেবল টম কুপার। সাবলিলভাবে ব্যাটিং করে মাত্র ৫৮ বলে ৯ চার ও ১ ছক্কায় ৭২ রানের হার না মানা ইনিংস উপহার দেন তিনি দলকে। মুদাসসর বুখারি ১৪ রান করে তাকে শেষ দিকে কিছুটা সহায়তা করেন। জিম্বাবুয়ের পক্ষে উতসেয়া ২৪ রানে ২টি, মুসাঙ্গুই ২৪ রানে ও  পানিয়াঙ্গারা ৩৮ রানে একটি করে উইকেট শিকার করেন্

এইউ নয়ন