সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় নির্বাচনকে সুষ্ঠু বলা যায় না: ইডব্লিউজি

0
28

ewgb_36932চতুর্থ উপজেলা নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে অনুষ্ঠিত হওয়া নির্বাচনকে সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে এই নির্বাচনকে সুষ্ঠু নির্বাচন বলা যায় না বলে মন্তব্য করেছেন, ইলেকশন ওয়ার্কিং গ্রুপের(ইডব্লিউজি) পরিচালক মো. আব্দুল আলীম।

মঙ্গলবার বিকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে উলেকশন ওয়ার্কিং গ্রুপ (ইডুব্লউজি) আয়োজিত ‘তৃতীয় পর‌্যায়ের উপজেলা নির্বাচন পর‌্যবেক্ষণ’ বিষয়ক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এমন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, প্রথম পর‌্যায়ের নির্বাচনে সহিংসতা কম হয়ে। যা  দ্বিতীয় পর‌্যায়ের নির্বাচনে বেড়েছ্। এবং তৃতীয় পর‌্যায়ে সেটা আরো অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে।সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে এই নির্বাচনকে সুষ্ঠু নির্বাচন হয়েছে এটা বলা যায় না।

আব্দুল আলীম আরও বলেন, দুটি বিষয়ের উপর নির্ভর করে নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় থাকে।প্রথমত- নির্বাচন কমিশনের উদ্যোগ।দ্বিতীয়ত- কমিশনের এই উদ্যোগকে সরকারের সমর্থন।

সাংবাদিকদের আরেক প্রশ্নের জবাবে ইডব্লিউজি পরিচালনা পরষদের সদস্য তালেয়া রেহমান বলেন, নির্বাচনের আগে যে প্রস্তুতি নেয়া দরকার ছিলো তা হয়তো নির্বাচন কমিশন নেয়নি।

ইডব্লিজির প্রতিবেদনে বলা হয়, তৃতীয় ধাপের উপজেলা নির্বাচনে ইডব্লিউজি ৮১ টি উপজেলার সবকটি ২৩৩৬টি ভোট কেন্দ্র নিজস্ব পর্যবেক্ষক দ্বারা পর্যবেক্ষণ করেছে।

মাঠ পর্যায়ের পর্যবেক্ষকদের পাঠানো তথ্য অনুযায়ী ৫৪ টি উপজেলায় ভোট কেন্দ্রের ভেতরে সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে ২৫৮টি।ভোটারদেরকে ভয়-ভীতিপ্রদর্শণের ঘটনা ঘটেছে ৩৮ উপজেলায় ১৪৩ টি।

এছাড়া, আইন অমান্য করে নির্বাচনী প্রচারণার ঘটনা ঘটেছে ৩৪ উপজেলায় ৮৭ টি।ভোটারদেরকে ভোট প্রদানে বাধা প্রদানের ঘটনা ঘটেছে ১০ উপজেলায় ১৪টি। ভোট কেন্দ্র বন্ধ ঘোষণা ঘটনা ঘটেছে ২৫ উপজেলায় ৯০টি।ভোট কেন্দ্রের কার্যক্রম পূনরায় চালু করার ঘটনা ঘটেছে ২৫ উপজেলায় ৭৮টি। পোলিং এজেন্টদেরকে কেন্দ্র থেকে বের দেয়ার ঘটনা ঘটেছে ২২ উপজেলায় ৭৭টি।

ইডব্লিউজির পর্যবেক্ষকেদের কেন্দ্রে প্রবেশ না করতে দেয়ার ঘটনা ঘটেছে ৭ উপজেলায় ৮টি।ইডব্লিউজির পর্যবেক্ষকদের ভোট গণনার সময় কেন্দ্রে প্রবেশ না দেয়ার ঘটনা ঘটেছে ৪৯ উপজেলায় ৯০ টি। এবং ভোট কেন্দ্রের ভেতর থেকে গ্রেপ্তারের ঘটনা ঘটেছে ২৫ উপজেলায় ৪০টি।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, সংগঠণের পরিচালনা পরষদের সদস্য ড. নাজমুল আহসান কলিমুল্লাহ, ডর্পের সাধারণ সম্পাদক এ এইচ এম নোমান, ইডব্লিজির এসোসিয়েট মেম্বার মারিয়া প্রমুখ।

এইচকেবি/