২০ মার্চ থেকে ‘রিহ্যাব ফেয়ার-২০১৪’ শুরু

0
48
Rehab Mela

Rehab Melaআগামি ২০ মার্চ থেকে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শুরু হবে আবাসন খাতভিত্তিক রিহ্যাব মেলা। এই মেলা চলবে ২৪ মার্চ পর্যন্ত। অন্যান্য বছর নভেম্বর-ডিসেম্বর-জানুয়ারিতে রিহ্যাব মেলার আয়োজন করা হলেও রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণেই এবার মার্চ মাসে মেলার আয়োজন করা হয়েছে বলে জানালেন রিহ্যাব কতৃপক্ষ।

সোমবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে রিয়েল এস্টেট এন্ড হাউজিং এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (রিহ্যাব) আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে রিহ্যাব সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) মে.জেনারেল মো. আব্দুর রশীদ বলেন, রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে কয়েক বছর ধরে আবাসন খাতে মন্দাভাব বিরাজ করছে এর ফলে গত বছর ফ্ল্যাট অবিক্রিত রয়ে গিয়েছিল ২২ হাজার ৫৭২টি। যার মূল্য প্রায় ২১ হাজার ৫০৬ কোটি ৩৬ লক্ষ ৭৫ হাজার ১১১ টাকা। তবুও অর্থনীতির চাকাকে গতিশীল রাখতে মেলার আয়োজন করতে হয়।

অভিযুক্ত এবং কোনো অনুমোদিত কোম্পানি মেলায় স্থান পাবে কি-না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, গত বছর যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ এসেছে তাদেরকে এবার মেলায় স্থান দেওয়া হবে না।

অনেক ডেভেলপার কোম্পানি জোরপূর্বক বিভিন্ন স্থানে জমির মালিকদের জিম্মি করে জমি কিনে নেয়। কিন্তু যে দাম পরিশোধ করে তা জমির বাজার মূল্য থেকে অনেক কম।

এক্ষেত্রে ওইসব কোম্পানিগুলোর বিরুদ্ধে কি ব্যবস্থা নিবেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, জমির মালিকেরা যদি সুনির্দিষ্ট অভিযোগ করেন সেক্ষেত্রে রিহ্যাবের নিয়মানুযায়ী অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এতে জমির মালিকেরা সন্তুষ্ট না হলে আদালতে যেতে পারবেন।

এবারের মেলায় মোট ১৫৫ টি স্টল থাকবে এর মধ্যে রিহ্যাবের সদস্য ১৪১টি এবং ভবন নির্মাণ সামগ্রীর অংশগ্রহণকারী ও অর্থলগ্নিকারী প্রতিষ্ঠান থাকবে ১৪টি। তাছাড়া কো-স্পন্সর হিসেবে থাকবে ১১টি প্রতিষ্ঠান।

প্রতিবছরের মত এবারও মেলায় প্রবেশের টিকেট মূল্য সিঙ্গেল ৫০ টাকা এবং মাল্টিপল টিকেটের মূল্য ১’শ টাকা ধরা হয়েছে। আর এ টিকেটের ওপর থাকছে আকর্ষনীয় র‌্যাফেল ড্র। প্রথম পুরস্কার হিসেবে থাকছে একটি ৪২ ইঞ্চি এলইডি টিভি, দ্বিতীয় পুরস্কার ১ দশমিক ৫ টন স্পিলিট এসি, তয়, ৪র্থ ও ৫ম পুরস্কার হিসেবে থাকছে ১৪ সিএফটি ফ্রিজ, ওয়াশিং মেশিন এবং মাইক্রোওয়েভ।

ক্রেতা-দর্শনার্থীদের জন্য প্রতিদিন সকাল ১১টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত মেলা খোলা থাকবে। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এর সমাপনী অনুষ্ঠান হবে ৩ এপ্রিল। তবে টিকেট বিক্রি থেকে প্রাপ্ত অর্থ সমাজের কল্যাণে ব্যয় করা হবে বলে জানান রিহ্যাব কতৃপক্ষ।

মেলায় রিহ্যাবের মেডিয়েশন এ্যান্ড কাস্টমার সার্ভিস সেলের তত্ত্বাবধানে একটি তথ্যকেন্দ্র। এখান থেকে মেলায় প্রদর্শিত যেকোনো প্রকল্প সম্পর্কিত তথ্য সংগ্রহ করতে পারবেন। এ সময় মেলা থেকে সাধ ও সাধ্যের মধ্যে ক্রেতারা মনের মত ফ্ল্যাট বা প্লট খুঁজে নিতে পারবে বলে জানান রিহ্যাবের নেতারা।

রিহ্যাবের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মেজর জেনারেল মো. আব্দুর রশীদের সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, সহ-সভাপতি লেয়াকত আলী ভূঁইয়া, সাধারণ-সম্পাদক মো. ওয়াহিদুজ্জামান, সাংগঠনিক-সম্পাদক সাইদুল ইসলাম বাদল, কো-চেয়ারম্যান প্রকৌশলী সরওয়ার্দি ভুঁইয়া কনভেনার আসাদুর রহমান জোয়ারদার প্রমুখ।

জেইউ/এএস