‘প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতাদের নতুন গন্তব্যস্থল বাংলাদেশ’

নিজস্ব প্রতিবেদক

0
91

বর্তমান সরকারের প্রযুক্তিবান্ধব নীতির কারণে দেশি-বিদেশি প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতাদের নতুন গন্তব্যস্থল হিসেবে বাংলাদেশ পরিচয় পেয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ‘টেকশহর ডটকম স্মার্টফোন ও ট্যাব এক্সপো-২০১৭’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, দেশের প্রযুক্তি পণ্য উৎপাদনের ৯৪টি যন্ত্রাংশের উপর ১ শতাংশ আমদানি শুল্ক ঘোষণা করার পরে দেশি প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি বিদেশি প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশে পণ্য উৎপাদনে বিনিয়োগ বাড়াচ্ছে।

দৈনন্দিন জীবনে অত্যাধুনিক মোবাইল ফোনের ব্যবহার উল্লেখ করে পলক বলেন, দেশে বর্তমানে ১০ কোটি মুঠোফোন ব্যবহারকারির মধ্যে ৫ কোটি স্মার্টফোন ব্যবহার করেন- যারা মধ্যবিত্ত সমাজে উন্নীত হয়েছেন। প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠা থেকে শুরু করে ঘুমাতে যাওয়া পর্যন্ত প্রতিটি ক্ষেত্রে মোবাইল ফোনের ব্যবহার বৃদ্ধি পাওয়ায় এটি আমাদের শরীরের বিকল্প অঙ্গ হিসেবে অবদান রাখছে।

তিনি বলেন, স্মার্টফোন এখন আধুনিক জীবনের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গে পরিণত হয়েছে। প্রতিদিনকার প্রায় সব কাজগুলোই এখন স্মার্টফোনে সেরে ফেলা হচ্ছে।

দেশে মোবাইল উৎপাদনের কারখানা স্থাপনের জন্য বিভিন্ন মোবাইল ব্র্যান্ড কোম্পানির প্রতিনিধিদের আহ্বান জানিয়ে পলক বলেন, মোবাইলের খুচরা যন্ত্রাংশে শুল্ক কমানোয় বেশ কয়েকটি ব্র্যান্ড ইতোমধ্যে দেশে কারখানা স্থাপনের আগ্রহ প্রকাশ করেছে। ইতোমধ্যে দেশে স্যামসাং ইলেক্ট্রনিক্স পণ্য, রেফ্রিজারেটর, ওভেন এবং স্মার্ট টিভি তৈরির কারখানা স্থাপন করেছে। আমরা চাই তারা দেশে মোবাইল কারখানাও তৈরি করুক।

স্মার্টফোনের বাজার বিকাশে এক্সপো মেকারের আয়োজনের কথা উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, সব প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানকে এক জায়গায় নিয়ে এসে স্মার্টফোন এক্সপো আমাদের পণ্য যাচাইয়ের সুযোগ করে দিচ্ছে। ক্রেতারা প্রতিযোগিতামূলক দামে পছন্দের ফোন কিনতে পারছেন।

অনুষ্ঠানে থাইল্যান্ডে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সৈয়দা মুনা তাসনিম বলেন, দেশে তথ্যপ্রযুক্তির উন্নয়নে থাইল্যান্ড ও কম্বোডিয়ার সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করে যাচ্ছে। আর এমন আয়োজন দেশের তথ্যপ্রযুক্তিতে অনেক অবদান রাখছে।’

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে টেকশহর ডটকম স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলার আয়োজক প্রতিষ্ঠান এক্সপো মেকারের কৌলশগত পরিকল্পনাকারী মুহম্মদ খানের সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন হুয়াওয়ের বিপণন ব্যবস্থাপক লি ডং, স্যামসাং ইলেকট্রনিক্স বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক স্যাংওয়ান ইউন, এডিসন গ্রুপের (সিম্ফনি মোবাইল) বিপণন পরিচালক আশরাফুল হক, উই স্মার্ট সল্যুউশনের ব্র্যান্ডিং ও কমিউনিকেশন বিভাগের উপ-মহাব্যবস্থাপক মুনতাসির আহমেদ, এডাটার পরিবেশক গ্লোবাল ব্র্যান্ডের মহাব্যবস্থাপক সমীর কুমার দাস, অপ্পো বাংলাদেশ কমিউনিকেশন ইকুইপমেন্ট কো. লিমিটেডের মার্কেটিং ও ব্র্যান্ডিং বিভাগের প্রধান ব্রুস লি, শাওমি বাংলাদেশের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা দেওয়ান কানন, র্যাং গস ইলেক্ট্রনিক্স লিমিটেডের মার্কেটিং বিভাগের জ্যেষ্ঠ ব্যবস্থাপক জানে আলম প্রমুখ।

রহমত/এসএম