পদ্মা সেতুর অপপ্রচার: তদন্ত কমিশন গঠন না হওয়ায় হাইকোর্টের ক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক

0
65
ছবি সংগৃহীত

পদ্মা সেতু নির্মাণ চুক্তি এবং দুর্নীতির মিথ্যা তথ্যের অপ্রচার নিয়ে তদন্ত কমিশন গঠন না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে এর নেপথ্যে প্রকৃত ষড়যন্ত্রকারীদের খুঁজে বের করতে আগামী ৩১ আগস্টের মধ্যে তদন্ত কমিশন গঠন করে  প্রতিবেদন জমা দিতে বলেছেন আদালত।

আজ বুধবার বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

ছবি সংগৃহীত

আদালতে  রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তাপস কুমার বিশ্বাস।

তদন্ত কমিশন গঠনে রাষ্ট্রপক্ষ আবার সময় আবেদন করলে আদালত ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘সেই ফেব্রুয়ারি মাসে অর্ডার হয়ে গেছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত আপনাদের চিঠি চালাচালি শেষ হয় নাই।’

ওই বক্তব্যের পর আদালত তদন্ত কমিশন গঠনে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত সরকারকে সময় বেঁধে দেন।

চলতি বছরের ২০ মার্চ পদ্মা সেতু নির্মাণ চুক্তি এবং দুর্নীতির মিথ্যা গল্প সৃষ্টির নেপথ্যে প্রকৃত ষড়যন্ত্রকারীদের খুঁজে বের করতে কমিটি বা কমিশন গঠনের অগ্রগতি প্রতিবেদন ৭ মের মধ্যে দাখিল করতে নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট।

এর আগে ১৫ ফেব্রুয়ারি পদ্মা সেতু নির্মাণ চুক্তি এবং দুর্নীতির মিথ্যা গল্প সৃষ্টির নেপথ্যে প্রকৃত ষড়যন্ত্রকারীদের খুঁজে বের করতে তদন্ত কমিশন গঠন করতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না এবং দোষীদের কেন বিচারের মুখোমুখি করা হবে না- তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট।

দুই সপ্তাহের মধ্যে মন্ত্রিপরিষদ, স্বরাষ্ট্র, আইন ও যোগাযোগ সচিব এবং দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যানকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়।

অর্থসূচক/আজম/এসএম