আলাদা হল জোড়া লাগানো তৌফা ও তহুরা

নিজস্ব প্রতিবেদক

0
94
ছবি; গণমাধ্যম

গাইবান্ধায় কোমরে জোড়া লাগানো অবস্থায় জন্ম নেওয়া শিশু তৌফা ও তহুরাকে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে আলাদা করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে অপারেশন শেষে এ কথা জানান ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের শিশু সার্জারি বিভাগের প্রধান আশরাফুল হক কাজল।

তিনি জানিয়েছেনে, এখন পর্যন্ত দুই শিশু সুস্থ আছে। তাদের আলাদা করার পর দুটো অপারেশন থিয়েটারে রেখে দুই দলে ভাগ হয়ে কাজ করছেন সার্জনরা। পুরো প্রক্রিয়া শেষ করতে আরও সময় লাগবে।

আশরাফুল হক জানান তিনিসহ রাজিউল হাসান, এস এম শফিকুল আলম, অসীত চন্দ্র সরকার, আব্দুল হানিফ ও কানিজ হাসিনা মিলে  বিভিন্ন বিভাগের মোট ১৬ জন সার্জন দুই শিশুর স্পাইনাল কর্ড, মেরুদণ্ড, পায়খানার রাস্তা ও প্রস্রাবের রাস্তা আলাদা করেন।

তিনি বলেন, চিকিৎসাবিজ্ঞানের ভাষায় এই রোগকে বলা হয় ‘পাইগোপেগাস’। বাংলাদেশের ইতিহাসে এই ধরনের জোড়া লাগানো  শিশু আলাদা করার ঘটনা এটি প্রথম।

উল্লেখ, গত বছরের ২৯ সেপ্টেম্বর গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার দহবন্দ ইউনিয়নের ঝিনিয়া গ্রামের রাজু মিয়ার স্ত্রী সাহিদা বেগম নিজ বাড়িতে জোড়া লাগানো অবস্থায় দুই কন্যা সন্তানের জন্ম দেন। কোমরের কাছে জোড়া লাগানো শিশু দুটির সব অঙ্গ-প্রত্যঙ্গই রয়েছে, তবে তাদের প্রস্রাব-পায়খানার রাস্তা একটি। গত বছরের অক্টোবরের তৃতীয় সপ্তাহে প্রথমবার ঢামেক হাসপাতালে অস্ত্রোপচার করে তাদের পায়ুপথের রাস্তা পৃথক করা হয়। সাহিদা বেগম ও রাজু মিয়া দম্পতির পাঁচ বছর বয়সী একটি ছেলেও রয়েছে।

টি