দুইটা কিডনিই বদলাতে হবে আবদুল জব্বারের

অর্থসূচক ডেস্ক

0
64

দুটো কিডনি নষ্ট হয়ে তিন মাস ধরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের ৬২০ নম্বর কেবিনে কাতরাচ্ছেন আবদুল জব্বার। চিকৎসকরা পরামর্শ দিয়েছেন দেশের বাইরে নিয়ে দুইটা কিডনি পরিবর্তন করার।

কিন্তু সংগীতশিল্পী আবদুল জব্বারকে অর্থাভাবে চিকিৎসার জন্য বিদেশে নিতে পারছে না পরিবার।

শিল্পীর ছেলে বাবু জব্বার জানিয়েছেন, আর্থিক সংকটে আবদুল জব্বারকে বিদেশে নিতে পারছেন না। তার চিকৎিসার জন্য যে অর্থ দরকার সেটা তাদের কাছে নেই।

বাবু জব্বার একটি অনলাইনকে জানান, প্রধানমন্ত্রী বিশ লাখ টাকা দিয়েছিলেন। কিন্তু সেই টাকা শেষ। একটা ইঞ্জেকশনের দাম ১২ হাজার টাকা। প্রতি সপ্তাহে একটা করে ইঞ্জেকশন দিতে হয়।

বাবু জব্বার জানান, মাঝে তার বাবার শারীরিক অবস্থা খুব খারাপ ছিল।কাউকে চিনতে পারতেন না। ইঞ্জেকশন দেওয়া পর এখন খানিকটা ভালো।

তিনি বলেন, এখনই তার বাবাকে বাইরে নিতে পারলে খুব ভালো হতো। কিন্তু এজন্য যে অর্থ লাগবে তা নেই জব্বারের ছেলে বা পরিবারের হাতে।

বাবাকে নিজের কিডনি দিতে চান বাবু জব্বার। কিন্তু তাকে তো দেশের বাইরে নেওয়ার টাকা কোথায় পাবেন সেই চিন্তায় বিষণ্ন হয়েছেন তিনি।

তবে তার আশা এই দুঃসময়ে শিল্পীর গানের রয়্যালিটি ঠিকমতো পেলে চিকিৎসা কিছুটা হলেও এগিয়ে যেত।

এদিকে জব্বারের কণ্ঠেও বাঁচার আকুতি। তিনি ওই অনলাইনটিকে বলেন, আমার বয়স তো শেষের দিকে। চিরদিন বাঁচব না। কিন্তু মৃত্যুর আগে অনুরোধ, উন্নত চিকিৎসার জন্য আমাকে দেশের বাইরে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হোক।

টি