খেলতে পারবেন না জকোভিচ!

স্পোর্টস ডেস্ক

0
68
Novak Djokovic
শিরোপায় জকোভিচের চুমু। ফাইল ছবি

২০১৫ সালের জানুয়ারি থেকে ২০১৬ সালের জুন পর্যন্ত ২৪টি টুর্নামেন্টে অংশ নিয়েছেন নোভাক জকোভিচ। এর মধ্যে ২২টি টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলেছেন তিনি। আর শিরোপা জিতেছেন ১৭টি।

ওই দেড় বছরে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের টেনিস কোর্টে আধিপত্য ছিল জকোভিচের। এর ধারাবাহিকতায় র‍্যাংকিংয়ের শীর্ষে উঠেন তিনি। তবে ২০১৬ সালের জুলাই থেকে একের পর এক ম্যাচ হারতে থাকেন সার্বিয়ার এই টেনিস তারকা। ২০১৬ সালে ফ্রেঞ্চ ওপেন জয়ের পর কোনো বড় শিরোপায় চুমু দিতে পারেননি জোকোভিচ। ফলে ১ নম্বর থেকে ৪ নম্বরে নেমে যান তিনি।

Novak Djokovic
শিরোপায় জকোভিচের চুমু। ফাইল ছবি

তবে সদ্য সমাপ্ত উইম্বলডনে নিজেকে যেন ফিরে পেয়েছিলেন জকোভিচ। একের পর এক জয় নিয়ে টুর্নামেন্টের কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছান তিনি। সেখানে টমাস বার্ডিচের বিপক্ষে ম্যাচ চলাকালে ইনজুরিতে পড়েন জকোভিচ। ফলে ম্যাচ শেষ না করেই কোর্ট ছাড়তে হয়েছে তাকে। চলতি মৌসুমে আর কোনো কোর্টেও নামতে পারবেন না তিনি। ফলে বছরের শেষ স্ল্যাম ইউএস ওপেনেও খেলতে পারবেন না ১২ বারের এই গ্র্যান্ড স্ল্যাম বিজয়ী।

ফেসবুকে পোস্টের মাধ্যমে এই কথা জানিয়েছেন নোভাক জকোভিচ। এক ভিডিও বার্তায় বিশ্বের সাবেক এক নম্বর টেনিস তারকা বলেন, প্রায় দেড় বছর ধরে এই ইনজুরিতে ভুগছি। সমস্যা প্রকট হওয়ায় ২০১৭ সালে আর কোন টুর্নামেন্টে অংশ না নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। দূর্ভাগ্যবশত এই মুহূর্তে আমাকে এই ধরনের সিদ্ধান্ত নিতে হচ্ছে। ইনজুরির বিষয়টি বিবেচনা করলে উইম্বলডন সম্ভবত আমার জন্য সবচেয়ে কঠিন টুর্নামেন্ট ছিল।

অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে জকোভিচ আরও বলেন, সুস্থ হওয়াটাই আমার জন্য এখন গুরুত্বপূর্ণ।  ইনজুরিমুক্ত হয়ে খেলা, প্রতিযোগিতাপূর্ণ খেলার জন্য আগে সুস্থ হতে হবে। আমি টেনিসকে অনেক বেশি ভালোবাসি। আমি অবশ্যই বিজয়ীর বেশে ফিরতে চাই। আমি জিততে চাই, ট্রফি জিততে চাই। কিন্তু এটা নিয়ে কথা বলার সময় এখন নয়। এখন আমি শুধু ইনজুরি থেকে মুক্তির বিষয়কেই গুরুত্ব দিচ্ছি।

তিনি জানান, বর্তমান ইনজুরি নিয়ে বেশ কয়েকজন চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া হয়েছে। সবাই বিশ্রামের পরামর্শ দিয়েছেন।

বিশ্রামের সিদ্ধান্ত নেওয়ায় কারণে আগামী সেপ্টেম্বরে ফ্রান্সে ডেভিস কাপে খেলতে পারবেন না জকোভিচ।

অর্থসূচক/এইচ/এমই/