গাজীপুরে কিশোর হত্যার দায়ে ৫ জনের ফাঁসি

প্রতিনিধি

0
80

গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলায় এক কিশোরকে হত্যার দায়ে ৫ জনের ফাঁসির রায় দিয়েছে আদালত। এছাড়া তাদের ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।

অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মো. ফজলে এলাহী ভূঁইয়া বুধবার নয় বছর আগের এ মামলার রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় দুই আসামি উপস্থিত থাকলেও অন্য তিন আসামি পলাতক রয়েছে।

সাজাপ্রাপ্তরা হলেন – কালীগঞ্জ উপজেলার ব্রহ্মণগাঁও এলাকার আ. কাদিরের ছেলে শামীম, বাচ্চু মোল্লার ছেলে নূরুল ইসলাম, মজনু সরকার ওরফে মজলুর ছেলে সাদ্দাম হোসেন, আব্দুস ছালাম ওরফে ছেলামের ছেলে শফিকুল ও ছমির উদ্দিনের ছেলে বাবু।

জানা গেছে, ২০০৮ সালের ১৬ অক্টোবর ব্রহ্মণগাঁও এলাকার ফজলুর রহমানের ছেলে মহিউদ্দিন মোবাইলে ফোন পেয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফিরে আসেনি।

পরদিন স্থানীয় ময়েজ উদ্দিনের বাড়ির পাশের বিল থেকে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে ক্ষত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ঘটনার পর তার বাবা ফজলুর রহমান থানায় মামলা করেন।

তদন্ত শেষে পুলিশ পাঁচজনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয়।

গাজীপুর জজ আদালতের এপিপি মো. মকবুল হোসেন ভূঁইয়া জানান, আদালত অন্য একটি ধারায় প্রত্যেককে আরও পাঁচ হাজার টাকা করে জরিমানাসহ তিন বছর সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে।

তিনি বলেন, মামলায় মোট ১০ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে বিচারক মো. ফজলে এলাহী ভূঁইয়া দুইটি ধারায় আসামিদের এই শাস্তি দেন।

রাষ্ট্রপক্ষে এপিপি মকবুল হোসেন ছাড়াও আতাউর রহমান খান ও আব্দুল করিম ঠান্ডু এবং আসামিপক্ষে মো. হানিফ শেখ ও বেগম জেবুন্নেছা মিনা মামলা পরিচালনা করেন।

টি