রেইনট্রি হোটেলে ধর্ষণ মামলায় ৫ জনের বিচার শুরু

অর্থসূচক ডেস্ক

0
67
Shafat-Sadman
বনানী ধর্ষণ মামলায় গ্রেপ্তারের পর শাফাত ও সাদমান। ফাইল ছবি

বনানীর রেইনট্রি হোটেলে দুই তরুণী ধর্ষণ মামলায় সাফাত আহমেদ ও তার দুই বন্ধুসহ পাঁচজনের বিচার শুরুর আদেশ দিয়েছে আদালত। আজ বৃহস্পতিবার আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে সাক্ষ্যগ্রহণ শুরুর জন্য আগামী ২৪ জুলাই দিন ঠিক করে দেওয়া হয়েছে।

ঢাকার দুই নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ সফিউল আজম এই আদেশ দেন। অভিযোগ গঠনের শুনানির জন্য ৫ আসামির সবাইকে আজ কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়েছে।

Shafat-Sadman
বনানী ধর্ষণ মামলায় গ্রেপ্তারের পর শাফাত ও সাদমান। ফাইল ছবি

তাদের পক্ষে শুনানি করেন আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের নেতা আব্দুর রহমান হাওলাদার, ঢাকা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট কাজী মোহাম্মদ নজিবুল্লা হিরু, মাহবুব আহমেদ ও খায়রুল ইসলাম লিটন। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন এই আদালতের বিশেষ কৌঁসুলি আলী আকবর।

বনানীর রেইনট্রি হোটেলে দুই তরুণী ধর্ষণ মামলার আসামিরা হলো- আপন জুয়েলার্সের অন্যতম মালিক দিলদার আহমেদের ছেলে সাফাত আহমেদ; তার বন্ধু ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রতিষ্ঠান ‘ই-মেকার্স’ এর কর্মকর্তা নাঈম আশরাফ; ঢাকার পিকাসো রেস্তারাঁর অন্যতম মালিক রেগনাম গ্রুপের এমডি মোহাম্মদ হোসেন জনির ছেলে সাদমান সাকিফ এবং সাফাতের গাড়িচালক বিল্লাল হোসেন ও দেহরক্ষী রহমত আলী।

প্রসঙ্গত, গত ২৮ মার্চ রাতে রেইনট্রি হোটেলে ধর্ষণের শিকার হন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থী। ধর্ষণের শিকার হওয়ার অভিযোগ এনে ওই দুই তরুণী গত ৬ মে বনানী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, ২৮ মার্চ পূর্বপরিচিত সাফাত আহমেদ ও নাঈম আশরাফ ওই দুই তরুণীকে জন্মদিনের দাওয়াত দেয়। এরপর তাদের বনানীর ‘কে’ ব্লকের ২৭ নম্বর সড়কের ৪৯ নম্বরে রেইনট্রি নামের হোটেলে নিয়ে যায়। সেখানে ওই দুই তরুণীকে হোটেলের একটি কক্ষে আটকে রেখে মাথায় অস্ত্র ঠেকিয়ে ধর্ষণ করে সাফাত ও নাঈম। এ ঘটনা সাফাতের গাড়িচালক বিল্লালকে দিয়ে ভিডিও করানো হয়।

মামলার প্রধান আসামি আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদারের ছেলে সাফাত আহমেদসহ পাঁচজনকে আসামি করা হয়। তাদের সবাইকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

অর্থসূচক/এমই/