‘ধর্ষণের শিকার’ তরুণীর শারীরিক পরীক্ষা সম্পন্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক

0
72
ছবি: প্রতীকী

ফেসবুকে পরিচয়ের পর জন্মদিনের দাওয়াতে ডেকে ধর্ষণের শিকার তরুণীর ফরেনসিক পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১১টা থেকে দেড়টা পর্যন্ত পাঁচ সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ড ওই তরুণীর পরীক্ষা-নিরীক্ষা সম্পন্ন করেন।

বোর্ডের সদস্যরা হলেন- ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহামুদ, ডা. প্রদীপ বিশ্বাস, ডা. মমতাজ আরা, ডা. রেজোয়ানা শারমিন ও ডা. কবীর সোহেল।

পরীক্ষা শেষে ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহামুদ বলেন, অভিযোগকারী তরুণীর স্বাস্থ্য পরীক্ষা এবং আলামত সংগ্রহের পর আমরা তা বিভিন্ন বিভাগে পাঠিয়েছি। এসব বিভাগে পাঠানো আলামতগুলোর প্রতিবেদন যখন আমাদের হাতে আসবে তখন এ বিষয়ে বিস্তারিত বলা যাবে। ধর্ষণের আলামত সংগ্রহের জন্য যে সময়ের মধ্যে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে হয় সেই নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই অভিযোগকারী আমাদের কাছে এসেছে। যেহেতু ৪৮ ঘণ্টা এখনও পার হয়নি তাই এর মধ্যে কোনো কিছু ঘটে থাকলে আমরা পজেটিভ রিপোর্ট পাব।

তিনি বলেন, ধর্ষণের শিকার ওই তরুণীর বেশ কয়েকটি শারীরিক পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। বয়স নির্ধারণের জন্য এক্সরে এবং ধর্ষণের আগে তাকে নেশাজাতীয় ওষুধ খাওয়ানো হয়েছিল কিনালো সেজন্য ব্লাড ও ইউরিন সংগ্রহ করে মহাখালীতে অবস্থিত রাসায়নিক পরীক্ষাগারে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া তার ডিএনএ পরীক্ষার জন্য হাইঢেজোনাল সফট সংগ্রহ করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ৩-৪ সপ্তাহের মধ্যে আমরা রিপোর্টগুলো হাতে পাবো।

গতকাল বুধবার ভোররাতে করা ওই মামলায় বাহাউদ্দিন ইভান (২৮) নামের ব্যবসায়ীকে আসামি করা হয়েছে। তার বাবা বোরহানউদ্দিনও একজন ব্যবসায়ী।তাকে এখনও গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।

অভিযোগের ভিত্তিতে বনানী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুল মতিন জানান, গত মঙ্গলবার রাতে জন্মদিনের কথা বলে বনানী ২ নম্বর সড়কের নিজের বাসায় ওই তরুণীকে ডেকে নেন বাহাউদ্দিন ইভান। দাওয়াত দেওয়ার সময় তার মায়ের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার কথা বলেছিল। ওই তরুণী সন্ধ্যার পর ইভানের বাসায় পৌঁছান। ওই সময় বাসায় অন্য কেউ ছিল না। এরপর তাকে আটকে গভীর রাত পর্যন্ত ধর্ষণ করে এবং রাত ৩টার দিকে বাসা থেকে বের করে দেয়। তার মোবাইল ফোনও রেখে দিয়েছেন ইভান।

আব্দুল মতিন বলেন, বুধবার ভোররাতে থানায় লিখিত অভিযোগ করেন ওই তরুণী। এরপরই ইভানকে গ্রেপ্তারের জন্য মাঠে নেমেছে পুলিশ। মধ্যরাত পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি।

তিনি আরও বলেন, ইভান বিবাহিত; তার এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। মঙ্গলবার রাতে তার বাসায় কেউ ছিলেন না বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে। বুধবার ইভানকে গ্রেপ্তারে অভিযানে যাওয়ার পর বাসায় তার স্ত্রী ও মাকে পাওয়া গেছে। তবে বাহাউদ্দিন ইভান পলাতক রয়েছেন।

এই পুলিশ কর্মকর্তা আরও বলেন, ওই তরুণীকে ভিকটিম সাপোর্টে সেন্টারে রাখা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার তার ডাক্তারি পরীক্ষা করা হবে।

প্রসঙ্গত, তিন মাস আগে জন্মদিনের দাওয়াতে ডেকে বনানীর রেইনট্রি হোটেলে দুই তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করা হয়েছিল। ব্যাপক আলোচনার মধ্যে আপন জুয়েলার্সের মালিকের ছেলে সাফাত আহমেদসহ পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ওই মামলায় ইতোমধ্যে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দিয়েছে পুলিশ।

অর্থসূচক/এসএম