সৌরচালিত যাদুর টয়লেট আসছে

0
128
সোলার টয়লেট, solar toilet

নিরাপদ স্যানিটেশন সুবিধা বঞ্চিত বিশ্বের আড়াইশ কোটি মানুষের জন্য আসছে যাদুর টয়লেট। সৌরশক্তির ব্যবহার হবে এসব টয়লেটে। ফ্ল্যাশ করার জন্য লাগবে না বাড়তি পানি। স্বয়ংক্রিয়ভাবে মানব-বর্জ্য পরিণত হবে জৈব সারে।

বিশ্বের অন্যতম ধনী মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস ও তার স্ত্রীর নামে প্রতিষ্ঠিত বিল অ্যান্ড মিলিন্ডা ফাউন্ডেশনের অর্থায়নে পরিচালিত গবেষণার মাধ্যমে এ টয়লেটের প্রযুক্তি আবিস্কৃত হয়েছে। চলতি মাসে ভারতে এ ধরনের টয়লেট যাত্রা শুরু করবে। খবর ইকোনমিক টাইমসের।

ইকোনমিক টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এ টয়লেটে উচ্চ তাপে মানব বর্জ্য প্রথমে তরলে পরিণত হবে। পরবর্তীতে এটি বায়ুচার নামে গুটি সারে পরিণত হবে।

কলোরাডো বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ও প্রকল্পের সমন্বয়কারী কার্ল লিন্ডেন বলেন, এ টয়লেট দু’দিক থেকে পরিবেশের জন্য ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে। প্রথমত এটি উৎকৃষ্ট মানের জৈব সার তৈরি করবে। এ সার ব্যবহারের মাধ্যমে কৃষিতে ক্ষতিকর রাসায়নিক সারের ব্যবহার কমানো যাবে। অন্যদিকে এটি কার্বন ডাই অক্সাইড গ্যাসের নির্গমণ কমাবে।

তিনি বলেন, বায়ুচার সরাসরি গাছে পুষ্টি যোগাতে পারবে না। তবে মাটিতে পানি ও অন্যান্য পুষ্টি ধরে রাখতে সাহায্য করবে। যদি মাটিতে ১০ ভাগ বায়ুচার মেশানো হয় তাহলে ওই মাটি অন্য মাটি থেকে ৫০ ভাগ বেশি পানি ধারণ করতে পারবে।

তাছাড়া যেসব অঞ্চলে পানির সংকট আছে, সেখানে এ ধরনের টয়লেট অনেক বেশি কার্যকর হবে।