অবৈধ ও ভুয়া চিকিৎসা কেন্দ্রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে সরকার : স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিম

0
81
nasim

nasimসরকারি হাসপাতালের আশেপাশে গড়ে ওঠা অবৈধ ও ভুয়া ক্লিনিক, ডাক্তার চেম্বার ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে বিশ্ব কিডনী দিবস-২০১৪ উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘জনগণের সুষ্ঠু চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে ডাক্তারদের সকল সুযোগ-সুবিধা দেবে সরকার। কিন্তু কোনো ধরণের অবৈধ সেবার সাথে জড়িত থাকলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে”।

তিনি আরও বলেন, সরকারি হাসপাতালের আশেপাশে কিছু ডাক্তার ও দালালদের অর্থায়নে ভুয়া ক্লিনিক, ডাক্তার চেম্বার ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার গড়ে উঠেছে। এদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

চিকিৎসায় অবহেলা ও সরকারি দায়িত্ব পালনে অবহেলা করলে তাদেরকেও চাকরিচ্যুত করার পাশাপাশি আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

আগামি তিন-চার দিনের মধ্যে কিডনি সংযোজন আইন সংশোধন করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের কথা জানান । এজন্য সংশ্লিষ্ট ডাক্তারদের স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ে যোগাযোগ করতে বলেন তিনি।

সকল হাসপাতালের টয়লেট ব্যবস্থাকে অনুন্নত উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘হাসপাতালে সুইপার নিয়োগের ক্ষেত্রে আর কখনোই শিক্ষাগত যোগ্যতাকে প্রাধান্য দেওয়া হবে না। শুধুমাত্র পেশাদারী সুইপারদেরকেই সরকারি হাসপাতালে নিয়োগ দেওয়া হবে’। পর্যাপ্ত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে সরকার ও বেসরকারী উদ্দোক্তাদের একসাথে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি।

এ সময় প্রত্যেকটি থানায় যাতে ডায়ালাইসিস সেন্টার থাকে তার দাবি জানান ক্যাম্পসের সভাপতি এ সামাদ।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. জাহিদ মালেক, বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. প্রাণ গোপাল দত্ত, কিডনি ফাইন্ডেশনের সভাপতি অধ্যাপক হারুন অর রশিদ প্রমুখ।

কেএফ