কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ইউপি চেয়ারম্যানকে গুলি করে হত্যা

Kushtia chairman Murder

Kushtia chairman Murderকুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলা বিএনপির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও জগন্নাথপুর ইউনিয়ন পরিষদের একাধিকবার নির্বাচিত চেয়ারম্যান মুন্সী রশিদুর রহমানকে (৪৫) গুলি করে হত্যা করেছে দুবৃত্তর্রা। গতকাল সন্ধ্যা ৬ টার দিকে কুমারখালী উপজেলার মহেন্দ্রপুর বাজারে এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, এই হত্যাকান্ডের প্রতিবাদে আজ কুষ্টিয়ায় সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ডেকেছে জেলা বিএনপি। পুলিশ জানায়, মুন্সী রশিদুর রহমান মহেন্দ্রপুর স্কুল সংলগ্ন বাজারের একটি চায়ের দোকানে বসে স্থানীয়দের সাথে কুশল বিনিমিয় করছিলেন। এ সময় দুইটি মটরসাইকেলেযোগে আসা পাঁচ/ছয় জনের একদল মুখোশধারী সন্ত্রাসী মুন্সী রশিদুর রহমানকে লক্ষ্য করে পর পর তিনটি গুলি করে পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে, পরবর্তীতে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. হাসান সরোয়ার কল্লোল জানান, কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে পৌঁছানোর আগেই তার মৃত্যু হয়েছে। নিহতের পারিবারিক

এলাকাবাসী জানায়, চরমপন্থী-সন্ত্রাসী অধ্যুষিত জগন্নাথপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হওয়ায় দীর্ঘদিন ধরেই তিনি সন্ত্রাসীদের টার্গেটে ছিলেন। চরমপন্থী-সন্ত্রাসীরা প্রায়ই তাকে হত্যার হুমকি দিত। যে কারণে বর্তমান মহাজোট সরকার ক্ষমতায় আসার পর বেশিরভাগ সময়ই মুন্সী রশিদুর রহমান স্ব-পরিবারে ঢাকায় অবস্থান করতেন। মাঝে মাঝে এলাকায় আসলে সব সময় লাইসেন্স করা অস্ত্র এবং লোক নিয়ে চলাফেরা করতেন। এ হত্যাকান্ডের ঘটনায় কাউকে আটক করতে পারেনি।

কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সোহেল রেজা জানান, মুখোশধারী কিছু সন্ত্রাসী এ হত্যকান্ডের ঘটনা ঘটিয়েছে। কেন এবং কারা এই হত্যকান্ড ঘটিয়েছে পুলিশ এ বিষয়টি এখনো নিশ্চিত হতে পারে নি। কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে পৌঁছানোর আগেই তার মৃত্যু হয়েছে।

 

এএস