দিনাজপুর সদর উপজেলায় সব পার্থী চিন্তিত

0
74
Upazila_Election

Upazila_Electionজমে উঠেছে দিনাজপুর সদর উপজেলা নির্বাচন। আগামি ১৫ই মার্চ অনুষ্ঠিত হবে দিনাজপুর সদর উপজেলা নির্বাচন। প্রার্থীরা ছুটছে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে। বিদ্রেহী প্রার্থী না থাকলেও আওয়ামী লীগের জন্য জাতীয় পার্টী, বিএনপির জন্য জামায়াত সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। কেউ নিশ্চিত হয়ে বলতে পারছেনা এবার কে হবেন উপজেলা চেয়ারম্যান।

ভোটাররা বলছে, এবার লড়াই হবে ত্রি-মুখী। তবে গত দুদফা নির্বাচনের ফলাফল জামায়াতকে চাঙ্গা করেছে।

সদর উপজেলায় আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি ও জামায়াতের বরাবরই রয়েছে নিজ নিজ অবস্থান। বিগত তিনটি নির্বাচনে এই উপজেলায় জাতীয় পার্টি, জামায়াত ও বিএনপি প্রার্থী একবার করে বিজয়ী হয়েছে।

সর্বশেষ ২০০৯ সালের নির্বাচনে বিএনপির সাবেক সভাপতি অ্যাড. মোফাজ্জল হোসেন দুলাল বিপুল ভোটে নির্বাচিত হন। তবে এবার তিনি নির্বাচন করছেন না। বর্তমানে মোকাররম হোসেন বিএনপির একক প্রার্থী হিসেবে দোয়াত কলম মার্কা নিয়ে নির্বাচন করছেন।

কিন্তু সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান জামায়াত নেতা মাও. মুজিবুর রহমান বর্তমান উপজেলা নির্বাচনে মোটর সাইকেল মার্কা নিয়ে নির্বচন করায় বিএনপির জন্য বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

কারণ মাওলানা মুজিবুর রহমানের রয়েছে ব্যক্তিগত ইমেজ। তিনি চেয়ারম্যান থাকা কালে দিনাজপুর থেকে পতিতালয় উচ্ছেদ করেণ। এ কারণে তাকে সাধারণ এবং মহিলা ভোটাররা বেশ পছন্দ করেন। এ ছাড়াও হেফাজতের নেতা কর্মীরাও তাকে সমর্থন করছেন। অপরদিকে গত দুদফা উপজেলা নির্বাচনের ফলাফলে জামায়াতের নেতা কর্মীরা চাঙ্গা হয়ে উঠেছে। তারা দুই দফায় অনুষ্ঠিত ৬ টি উপজেলার মধ্যে একটিতে জয় লাভ করেছে। দুটিতে রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে। ভাইস চেয়ারম্যান পদ গুলোতে রয়েছে ব্যাপক সফলতা। কাজেই  ব্যক্তিগত ইমেজ আর জামায়াতের সফলতার ফলে মাও. মুজিবুর রহমান চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে অবাক হওয়ার কোন কারণ নেই।

তবে বিএনপি-জামায়াতকে নিয়ে  এক সাথে চলতে না পারলে তাদের জয় লাভ করা হবে খুবই কঠিন।

এদিকে আওয়ামী লীগ একক প্রার্থী দিতে পারলেও জাতীয় পার্টিকে নিয়ে পড়েছে বেকায়দায়। কারণ এই উপজেলায় বিএনপি  ও জামায়াতের অবস্থা ভাল। তাদের রয়েছে ব্যাংক ভোট।

 আরকে/সাকি