চট্টগ্রামে ট্রেন-মিনিবাস সংঘর্ষের ঘটনায় বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠন

0
77
chittagong

chittagongচট্টগ্রামে ট্রেন ও মিনিবাস সংঘর্ষে ৪ জন নিহত হওয়ার ঘটনায় পাঁচ সদস্যের বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠন করেছে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চল কর্তৃপক্ষ। একই ঘটনায় উচ্চ পর্যায়ের আরও একটি তদন্ত কমিটি গঠনের প্রক্রিয়া চলছে। এমনটাই জানিয়েছেন রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের ডিভিশনাল রেলওয়ে ম্যানেজার এস এম মুরাদ হোসেন।

ঘটনার পর কালুরঘাট শিল্প এলাকায় বেইজ টেক্সটাইলসহ অধিকাংশ পোশাক কারখানা ছুটি দেওয়া হয়েছে।

বিভাগীয় তদন্ত কমিটির প্রধান করা হয়েছে- রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের ডিভিশনাল ট্রাফিক অফিসার ফিরোজ ইফতেখার, ডিভিশনাল মেডিকেল অফিসার ডা.মো.কামরুজ্জামান, ডিভিশনাল ইঞ্জিনিয়ার-১ আবিদুর রহমান, ডিভিশনাল মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার মো.কামরুজ্জামান এবং রেলওয়ে পুলিশের কমান্ড্যান্ট আব্দুর রাজ্জাক।

সকাল সাড়ে ৮টায় নগরীর চাঁন্দগাঁও থানার বাহির সিগন্যাল এলাকায় চট্টগ্রাম- দুহাজারী লোকাল ট্রেনের সাথে মিনিবাস সংর্ঘষ হয়।এই সংঘর্ষে তৈরি পোশাক কারখানার ৪ নারী শ্রমিক নিহত হয়। আহত হয় অন্তত ১০ জন। আহতদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

নিহতরা হলেন- ইয়াসমিন আক্তার (১৯), জুলিয়া আক্তার (৩০), রিয়া (২০) এবং সুইটি আক্তার (২০)। দুর্ঘটনার পর ঘটনাস্থল থেকে মিনিবাসের চালককে আটক করেছে পুলিশ।

প্রত্যাক্ষ্যদর্শীরা জানান, ওই রেলক্রসিংয়ে কোনো গেইট এবং গেইটকিপার না থাকায় মিনিবাসটি বাহির সিগন্যাল এলাকার রেল লাইনের ওপর উঠলে লোকাল এ ট্রেনটির ধাক্কায় ঘটনাস্থলেই চার জনের মৃত্যু হয়।

ঘটনার পর কালুরঘাট শিল্প এলাকায় বেইজ টেক্সটাইলসহ অধিকাংশ পোশাক কারখানা ছুটি দেওয়া হয়েছে। বিভিন্ন কারখানায় সাময়িক উত্তেজনা সৃষ্টির পর কালুরঘাটে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

কেএফ