ঝিনাইদহে প্রকাশ্যে চলছে মাদকের নিয়মিত আসর

0
69
jhinaidoho
ঝিনাইদহ ম্যাপ

jhinaidohoঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলাটি বর্তমানে মাদকের স্বর্গরাজ্যে পরিণত হয়েছে। হেরোইন-মদ-গাঁজা-ভাং-তাড়ি ফেনসিডিলসহ সর্বপ্রকার মাদকদ্রব্য এই উপজেলায় প্রকাশ্যে বিক্রি হচ্ছে।

বর্তমানে এই শহর মাদকদ্রব্য চোরাচালানের ট্রানজিট পয়েন্ট হিসেবে ব্যবহার হচ্ছে। দিবারাত্রি কালীগঞ্জ রুট হয়ে ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে পুলিশ প্রশাসনের নাকের ডগার ওপর দিয়েই পাচার হচ্ছে এসব।

উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা এলাকার ভোলাডাঙ্গা মাঠ, তালতলা থেকে বানুড়িয়া মাঠের রাস্তা, বানুড়িয়া গ্রামের বটতলা মাঠের রাস্তা, কামারবাড়ী মোল্লার দোকান, মণ্ডলবাকের পাড়,শমসেরের বাড়ী, জাহিদুলের বাড়ী, মনিকবিরের বাড়ি বর্তমানে মাদক বিক্রেতা ও খোররা নিরাপদ আশ্রয়স্থল হিসেবে ব্যবহার করছে বলে একাধিক সূত্র জানিয়েছে।

ভোলাডাঙ্গা মাঠকে অনেকে মাদক পর্যটককেন্দ্র নাম দিয়েছে। একইভাবে শহরের পার্শ্ববর্তী গ্রাম ঢাকা-খুলনা মহাসড়ক সংলগ্ন খয়েরতলা, বাকুলিয়া, বেজপাড়া, মহাদেবপুর, ভাটপাড়া ও সুন্দরপুর গ্রামগুলোতে বর্তমানে ফেনসিডিলসহ বিভিন্ন ধরনের মাদকের জমজমাট ব্যবসা চলছে বলে জানা গেছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এলাকার একাধিক ব্যক্তি জানিয়েছে, বালিয়াডাঙ্গা এলাকার ভোলাডাঙ্গা ও তালতলা মাঠের রাস্তায় প্রতিদিন সকাল থেকে রাতে অসংখ্য মটরসাইকেলের আনাগোনা চলে। প্রথম দিকে লুকিয়ে বেচাকেনা ও খাওয়া হলেও বর্তমানে প্রকাশ্যে এসব কাজ চলছে।

জানা গেছে, এলাকার প্রভাবশালী সাবেক ইউপি সদস্য আনোয়ার হোসেন গ্রামগুলোর মাদক ব্যবসার সিন্ডিগেট প্রধান হিসেবে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। সেই সাথে এলাকার লুৎফর রহমান, মিন্টু মিয়া, আলতাফ হোসেনসহ চিহ্নিত কতিপয় যুবক এই ব্যবসার সাথে জড়িত রয়েছে বলে জানা যায়। এ সকল ব্যবসায়ীরা সকলেই সরকারি দলের ছত্রছায়ায় নির্বিঘ্নে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে।

একজন স্কুল শিক্ষক জানান, প্রতিদিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত গ্রামের রাস্তাগুলোতে অসংখ্য মটরসাইকেল আনাগোনা করে। ঝিনাইদহ, কালীগঞ্জ, কোটচাঁদপুর, মাগুরাসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে যুবকরা ফেনসিডিল সেবন করার জন্য আসে। মটরসাইকেল ও বিভিন্ন বাহনে আসা নেশাখোরদের সাথে বিক্রেতাদের বেচাকেনা হয়। বিক্রেতারা সড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে অবস্থান নেয়।

মাদক ব্যবসায়ী আনোয়ার ও তার সহযোগিরা কয়েক বছর ধরে মাদক ব্যবসা চালিয়ে আসলেও তারা সবসময় থাকে ধরাছোঁয়ার বাইরে। থানা পুলিশও থাকে তাদের নিয়ন্ত্রনে। বর্তমানে কালীগঞ্জ থানা পুলিশ ম্যানেজ করে আনোয়ার ফেনসিডিলসহ বিভিন্ন মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে বলে এলাকাবাসী অভিযোগ করেছেন।

কেএফ