‘বন্ধুত্বের নামে ভারতের আগ্রাসন’

0
71
shofiul alam prothan

shofiul alam prothanবন্ধুত্বের নামে ভারত বাংলাদেশের ওপর আগ্রাসন চালিয়ে যাচ্ছে এবং তারা বন্ধুত্বের মুখোশ পরে কৌশলে বাংলাদেশ থেকে সকল সুযোগ-সুবিধা ভোগ করছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির সভাপতি শফিউল আলম প্রধান।

সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে  আগ্রাসন প্রতিরোধ জাতীয়  কমিটি আয়োজিত কান্টিভিটির নামে ভারতকে ট্রানজিট ও করিডোর প্রদানের সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবিতে মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

প্রধান বলেন, ভারত বাংলাদেশের স্থল ও নৌপথ ব্যবহার করে হাজার হাজার টন মালামাল বিনা শুল্কে নিয়ে গেলো কিন্তু তারা আমাদেরকে বন্ধুত্ব স্বরুপ কোনো সুযোগ-সুবিধা আজ পর্যন্ত দেয়নি। কথা ছিলো উৎপাদিত মূল্যে বিদ্যুৎ পাবো, তিস্তার পানির ন্যায্য হিস্যা পাবো কিন্তু বাস্তবতাটা পুরোপুরি ভিন্ন ।

প্রধান বলেন, ভারত ট্রানজিট ও করিডোরের বিষয়টি নিশ্চিত হবার জন্যই ৫ জানুয়ারির মতো ভোটারবিহীন নির্বাচনের মাধ্যমে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় এনেছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ ইতিমধ্যে ভারতের কাছে পানিসহ অন্যান্য ক্ষেত্রে যে ন্যায্য হিস্যা পায় তা ব্যতিরেকে কোনো কানেক্টিভিটি দেয়ার চুক্তি বাংলাদেশের মানুষ মেনে নেবে না।

মানববন্ধনে সভাপতির বক্তব্যে সংগঠনের সদস্য আলমগীর মজুমদার ‘কানেক্টিভিটি’র নামে ভারতকে ট্রানজিট বা করিডোর প্রদানের সিদ্ধান্ত বাতিলের জোর দাবী জানিয়ে বলেন, বহুকিছু প্রাপ্তি এবং উল্লেখযোগ্য পরিমাণ শুল্ক আদায়ের কথা বলে সরকার বাংলাদেশের স্থল ও নৌপথ ব্যবহার করে ভারতকে হাজার হাজার টন মালামাল বিনা শুল্কে নেয়ার সুযোগ দিচ্ছে।
আগ্রাসন প্রতিরোধ জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব আলমগীর মজুমদারের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আরো উপস্থিত ছিলেন,বাংলাদেশ ইসলামি পার্টির চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আব্দুল বিন,ইসলামি পার্টির মহাসচিব  এম.এ.রশিদ প্রধান,এলডিপির যুগ্ম মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম,বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির যুগ্ম মহাসচিব এম.আমিনুর রহমান খান প্রমুখ।

জেইউ/