ফরিদপুরে জমে ওঠেছে নির্বাচনী প্রচার

0
93
foridpur
ফরিদপুর মানচিত্র

ফরিদপুর ম্যাপআগামি ১৫ মার্চ তৃতীয় দফায় ফরিদপুর জেলার ৬টি উপজেলায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। প্রার্থীরা ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন, দিচ্ছেন নানা প্রতিশ্রুতি।এই নির্বাচনে সকল রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণ থাকায় ভোটারদের মধ্যে দেখা দিয়েছে ব্যাপক উৎসাহ।

বিজয়ী হবার জন্য কোমর বেধে নির্বাচনী মাঠে নেমেছেন প্রধান দুদল আওয়ামী লীগ ও বিএনপি। জেলার সদর, মধুখালী, আলফাডাঙ্গা, ভাঙ্গা, সদরপুর ও চরভদ্রাসন উপজেলায় চলছে প্রচার। প্রার্থীদের মাইকিং, ব্যানার আর ফেস্টুনে নির্বাচনী আমেজ ছড়িয়ে পড়েছে সর্বত্র।

নির্বাচনে প্রার্থীরা হলেন-আওয়ামী লীগের প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রীর সহোদর খন্দকার মোহতেশাম হোসেন বাবর, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক হাসিবুল হাসান লাভলুর স্ত্রী ঝর্ণা হাসান, বিএনপির মাহাবুবুল হাসান ভঁইয়া পিংকু, জামায়াতে ইসলামীর প্রফেসর আবদুত তাওয়াব ও স্বতন্ত্র প্রার্থী গোলাম দস্তগির। সদর উপজেলায় ৩ লক্ষ ১ হাজার ৭৮৬ জন ভোটার পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করবেন।

এদিকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ঝর্ণা হাসান প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর বিরুদ্ধে আচরণবিধি লংঘনের অভিযোগ করেছেন। আওয়ামী লীগের এই বিদ্রোহী প্রার্থীর সাথে সুর মিলিয়েছেন জামায়াত সমর্থিত প্রার্থী প্রফেসর আবদুত তাওয়াব।

অপরদিকে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী মাহাবুবুল ইসলাম পিংকু অভিযোগ করেন, সরকারি দলের প্রার্থীরা ক্ষমতা বলে তাদের নেতাকর্মীদের ভয় দেখাচ্ছে। এ অবস্থায় সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সেনাবাহিনী নিয়োগের দাবী জানান তিনি।

জেলা রিটার্ণিং অফিসার মো: জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, সুষ্ঠ নির্বাচনের সকল ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। চলছে ফাইন টিউনিংয়ের কাজ। জেলার সদর উপজেলায় ৫ জন, মধুখালী উপজেলায় ৪ জন, আলফাডাঙ্গা উপজেলায় ৬ জন, ভাঙ্গা উপজেলায় ৪ জন, সদরপুর উপজেলায় ৪ জন ও চরভদ্রাসন উপজেলায় ৪ জন প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

কেএফ