দিনাজপুরে ৬ আসনে লড়াই হবে আ.লীগ ও জাতীয় পার্টি
শনিবার, ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » রংপুর

দিনাজপুরে ৬ আসনে লড়াই হবে আ.লীগ ও জাতীয় পার্টি

দিনাজপুর ম্যাপনির্বাচন কমিশনের ধার্য্য অনুযায়ী আগামী ৫ জানুয়ারী আসন্ন দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দিনাজপুরের ৬ টি আসনে  লড়াই হবে আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টি। বিএনপি নির্বাচনে অংশ গ্রহণ না করায় এবার আওয়ামী লীগের প্রতিদ্বন্দ্বি জাতীয় পার্টি। মনোনয়ন পত্র জমা দিয়ে প্রার্থীরা মাঠ গুছাতে হিসাব নিকাশ শুরু করেছে।

গত ৯ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এই ৬ টি আসনে বিএনপিকে হারিয়ে দখলে নেয় আওয়ামী লীগ। এর পর একের পর এক উন্নয়নে দিনাজপুরের রুপরেখা পাল্টে যায়। ৬ টি আসনই গড়ে ওঠে আওয়ামী লীগের দূর্গ হিসেবে। দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টি এই ৬ টি আসন দখলে নিতে প্রতিটি আসনে প্রার্থী চুড়ান্ত করেছে। সব কিছু ঠিক ঠাক থাকলে আসন্ন নির্বাচনে দিনাজপুরের ৬ টি আসনে মাঠ কাপানো লড়াই হবে এ দুই দলের। তবে দু দলেই সন্দিহান রয়েছে সঠিক সময়ে নির্বাচন সম্পন্ন নিয়ে। দেশের চলমান পরিস্থিতি নিয়ে রাজনৈতিক ও বিদেশীদের সিদ্ধান্তের চাপে যেন নির্বাচনে বাধা সৃষ্টি না হয় সে দিকে লক্ষ্য রাখছে প্রধান এই দু-দলের প্রার্থীরা।

অপরদিকে নির্বাচন বানচাল করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে বিএনপি সহ ১৮ দলীয় জোটের নেতৃবৃন্দ। তারা চায় যে কোনো মূল্যে নির্বাচন বানচাল করতে। তবে বিএনপিসহ ১৮ দল নির্বাচনে অংশ নিলে পাল্টে যাবে নির্বাচনী লড়াইয়ের হাল হকিকত। আওয়ামী লীগের পাশাপাশি জাতীয় পার্টি প্রার্থী নিশ্চিত করায় ভোটাররাও নড়ে চড়ে উঠেছে। তাদের চাওয়া সুষ্ঠু ও গ্রহনযোগ্য নির্বাচন।

জেলা রিটানিং অফিসার সূত্রে জানা যায়, দিনাজপুরের ৬ টি নির্বাচনী এলাকায় ৩ হেবিওয়েট প্রার্থীসহ ২২ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। গত বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার মনোনয়ন পত্র যাচাই- বাছাইয়ের পর দিনাজপুর- ৬ আসনে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য ড. আজিজুল হক ও আওয়ামী লীগ নেতা আবু হানিফ দলের মনোনয়ন না পাওয়ায় তাদের মনোনয়ন পত্র বাতিল করেছে জেলা রিটানিং অফিসার। এছাড়া দিনাজপুর সদর-৩ আসনে জাতীয় পার্টি’র (জেপি)প্রার্থী সাহাদত জামান এর ঋন খেলাপীর দায়ে মনোনয়ন বাতিল করে রিটানিং অফিসার।

অপরদিকে  নির্বাচন করার লক্ষ্যে প্রতিদিন ভোটারদের দারস্থ হচ্ছেন মনোনয়নপত্র দাখিলকারীরা।

দিনাজপুর-১ (বীরগঞ্জ-কাহারোল) আসনে  লড়াই হবে আওয়ামী লীগের মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি, জাতীয় পার্টির শাহিনুর ইসলাম ও বাংলাদেশের ওয়ার্কাস পার্টির আবদুল  হকের মধ্যে।

দিনাজপুর-২ (বিরল-বোচাগঞ্জ) আসনে আওয়ামী লীগের খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি, জাতীয় পার্টির ড. আনোয়ার চৌধুরী জীবন, স্বতন্ত্র প্রার্থী মোকাররম হোসেনের মধ্যে।

দিনাজপুর-৩ (সদর) আসনে আওয়ামী লীগের ইকবালুর রহিম এমপি,জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক আহমেদ শফি রুবেল, বাংলাদেশের ওয়ার্কাস পার্টির মাহমুদুল হাসান মানিক ও বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির রামেন্দ্র নারায়ন রায়ের মধ্যে।

দিনাজপুর-৪ (চিরিরবন্দর-খানসামা) পররাষ্ট্র মন্ত্রী ও সাবেক রাষ্ট্রদূত এ.এইচ. মাহমুদ আলী এমপি, জাতীয় পার্টির মোঃ আব্দুল আলীম হাওলাদার ও বাংলাদেশ ওয়ার্কাস পার্টির মোঃ এনামুল হক সরকারের মধ্যে।

দিনাজপুর-৫ (পার্বতীপুর-ফুলবাড়ী) আসনে সাবেক ভুমি প্রতিমন্ত্রী ও জেলা আওযামী লীগের সভাপতি  এ্যাড.মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার এমপি, জাতীয় পার্টির এ্যাড. মোঃ নুরুল ইসলাম ও বাংলাদেশের ওয়ার্কাস পার্টির মোঃ আফছার আলীর মধ্যে।

দিনাজপুর-৬ (বিরামপুর-হাকিমপুর-নবাবগঞ্জ-ঘোড়াঘাট) আসনে আওয়ামী লীগের  নব মনোনীত প্রার্থী নবাবগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান শিবলী সাদিক ও জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি মোঃ দেলোয়ার হোসেন এবং বাংলাদেশের ওয়ার্কাস পার্টির রবীন্দ্রনাথ সরেনের মধ্যে।

সাকি/

 

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ