কাজ চালু রাখতে স্বল্প সুদে ঋণ পাচ্ছে স্টান্ডার্ড গ্রুপ
শনিবার, ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » ব্যাংক-বিমা

কাজ চালু রাখতে স্বল্প সুদে ঋণ পাচ্ছে স্টান্ডার্ড গ্রুপ

standard_fireগাজীপুরের কোনাবাড়িতে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত স্টান্ডার্ড গ্রুপের পোশাক কারখানাটি পুনরায় চালু করতে স্বল্প সুদে ঋণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এ জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের এক্সপোর্ট ডেভেলপমন্টে ফান্ড থেকে ২৫ মিলিয়ন ডলার ঋণ দেয়া হবে। এছাড়া কাঁচামাল ও মূলধনী যন্ত্রপাতি আমদানির জন্য স্থাপিতব্য ঋণপত্রের ক্ষেত্রে কেস টু কেস ভিত্তিতে যে ঋণপত্রের জন্য যতটুকু সময় দরকার চাহিদামত সেটিও অনুমোদন করবে বাংলাদেশ ব্যাংক।

রোববার বাংলাদেশ ব্যাংকে স্টান্ডার্ড গ্রুপের কর্মকর্তা, স্টান্ডার্ড গ্রুপের ঋণ নেওয়া ৫ টি ব্যাংকের প্রধান নির্বাহী ও বিজিএসইএ-এর সাথে বাংলাদেশ ব্যাংকের আলোচনা হয়। সেখানে বাংলাদেশ ব্যাংক এসব প্রতিনিধিদলের সাথে কথা বলে স্টান্ডার্ড গ্রুপের ঋণের সুদহার কমানোসহ সব আবেদন মঞ্জুর করে।

এ সময় বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকরে গভর্নর ড. আতিউর রহমান, ডেপুটি গভর্নর এস কে সুর চৌধুরী, নির্বাহী পরিচালক ম. মাহফুজুর রহমান ও এস এম মনিরুজ্জামান, বিজিএমইএ-এর সভাপতি মো. আতিকুল ইসলাম, স্টান্ডার্ড গ্রুপের চেয়ারম্যান আতিকুর রহমান, ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোশাররফ হোসেন এবং ৫ টি ব্যাংকের কর্মকর্তারা।

বৈঠক শেষে বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর এসকে সুর চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, স্টান্ডর্ড গ্রুপের পোশাক কারখানাটি পুনরায় চালু করতে তাদের আবেদনের প্রেক্ষিতে কিছু পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। এর মধ্যে নতুন ঋণ গ্রহণের ক্ষেত্রে ৬ মাস লন্ডন আন্তঃ ব্যাংক সুদের সাথে এক শতাংশের পরিবর্তে দশমিক ৫ শতাংশ এবং অর্থায়নকারী ব্যাংক সমূহ দেড় শতাংশের পরিবর্তে এক শতাংশ হারে অর্থাৎ মাত্র দেড় শতাংশ হারে সুদ পাবে এ প্রতিষ্ঠানটি। এছাড়া আমদানির জন্য ঋণপত্র খুলতে বাংলাদেশ ব্যাংকে চালু থাকা রপ্তানি উন্নয়ন তহবিল থেকে আগে নেওয়া ঋণের সাথে আরও ২৫ মিলিয়ন ডলার ঋণ দেয়া হবে। সেক্ষেত্রে বকেয়া ঋণের মেয়াদপূর্তিতে ৬ মাস করে ৩ বছর পর্যন্ত শুধু মাত্র আসল নবায়ন করা হবে। অর্থায়নকারী ব্যাংকসমূহকে একই নিয়ম অনুসরণ করতে হবে বলে জানান তিনি। এ সুবিধা বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন নিয়ে স্টান্ডার্ড গ্রুপের অধীন সকল রপ্তানি উন্নয়ন তহবিলের সুবিধা গ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে।

তিনি আরও বলেন, স্টান্ডার্ড গ্রুপের নির্দিষ্ট প্রতিষ্ঠানের অনুকূলে প্রত্যাবাসিত রপ্তানি মূল্য দ্বারা আমদানি ব্যয় নির্বাহের পর অবশিষ্ট স্থিতি একই গ্রুপভুক্ত অন্যান্য প্রতিষ্ঠানে ব্যবহার করতে পারবে। তবে সেক্ষেত্রে বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন নিতে হবে। আর প্রতিষ্ঠানের দ্বায়-দেনা অর্থায়নকারী ব্যাংকের সম্মতি সাপেক্ষে ডাউন পেমেন্ট ছাড়া এক বছর গ্রেস পিরিয়ডসহ ৫ বছর মেয়াদে পুনঃতফসিল করা যাবে। তবে এ ক্ষেত্রে পুনঃতফসিলকৃত ঋণের সুদহার ব্যাংকের তহবিল ব্যয়ের চেয়ে বেশি হতে পারবে না বলে জানান তিনি। আর কাঁচামাল ও মূলধনী যন্ত্রপাতি আমদানির জন্য যে ঋণপত্রের জন্য যতটুকু সময় দরকার বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমতি সাপেক্ষে তাও নিতে পারবে প্রতিষ্ঠানটি।

এহসান

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ