প্রস্তাব খারিজ, ১১ মার্চ পর্যন্ত তিহারেই সুব্রত

0
85

sahara_subrata_royবিনিয়োগকারীদের  অর্থ ফিরিয়ে দেওয়ার প্রস্তাব খারিজ করে দিয়েছে ভারতের  সুপ্রিম কোর্ট। এর ফলে ফের ১১ মার্চ  শুনানি পর্যন্ত তিহার জেলেই থাকতে হচ্ছে  সাহারা গ্রুপের প্রধান সুব্রত রায়কে। শুক্রবার আদালতের এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়। খবর এনডিটিভির।

প্রতিবেদনে বলা হয়, শ্রক্রবার সাহারার প্রস্তাব শুনতে সম্মতি দেয় সর্বোচ্চ আদালত। প্রস্তাবে সাহারা আইনজীবী বলেন, বিনিয়োগকারীদের ২৪ হাজার কোটি রুপি ফেরত দিতে প্রতি তিন মাস অন্তর কিস্তিতে শোধ করার সময় দেওয়া হউক। এছাড়া এই টাকা সংগ্রহ করতে সাহারা প্রধান সুব্রত রায় ও সংস্থার আরও দুই ব্যক্তিকে জেল হেফাজত থেকে রেহাই দেওয়ার অনুরোধ জানান তিনি। কিন্ত এই প্রস্তাবে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিচারপতি। আদালতের পক্ষ থেকে বলা হয়, এর থেকে ভালো প্রস্তাব না থাকলে তাঁরা যেন আদালতের সময় নষ্ট না করে।

উল্লেখ্য, বিনিয়োগকারীদের ২৪ হাজার কোটি রুপি ফেরত দিতে ব্যর্থ হওয়ায় দেশটির সর্বোচ্চ আদালত তার বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করে। নানা নাটকীয় ঘটনার অবতারণা হওয়ার পর ৬৫ বছর বয়সী সুব্রত রায় গত শুক্রবার লক্ষ্মৌ পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেন। এরপর ৪ মার্চ তাকে পুলিশি প্রহরায় আদালতে হাজির করা হয়।

কারাগার সূত্রের বরাত দিয়ে ওই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়,  তিহার কারাগারে  আজ তিন দিন হয়ে গেছে তার। সেখানে তিনি সাধারণ জেলখাটা ব্যক্তিদের মতোই   রাত কাটাচ্ছেন। ফ্লোরে ঘুমানো ছাড়াও নিয়মিত জেলের খাদ্য খাচ্ছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, ভারতের সুপ্রিম কোর্টে ঢোকার সময় তার মুখে কালি ছুঁড়ে মারেন এক বিক্ষুদ্ধ আইনজীবী। কালি ছুঁড়ে মারা ওই আইনজীবীর নাম মনোজ শর্মা। ঘটনার পরপরই তাকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানা যায়।

এস রহমান/