অপহরণের ৩৬ দিন পর স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার

0
63
narayanganj
নারায়ণগঞ্জের মানচিত্র: ফাইল ছবি

narayanganjঅপহরণ করার ৩৬ দিন পর নারায়ণগঞ্জের স্কুলছাত্র রফিকুল ইসলাম ইমনের (১৪) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সকালে বন্দরের কামতাল মালিভিটা এলাকার ডোবা থেকে বস্তাবন্দী লাশটি উদ্ধার করা হয়।

ইমনের বাড়ি ধামগড় ইউনিয়ন পরিষদের কামতাল মালিভিটা গ্রামে। তার বাবা নুরা মিয়া দুবাই প্রবাসী। সে মোগড়াপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

পুলিশ বুধবার রাতে মোবাইল ফোন ট্র্যাকিং করে ৩ অপহরণকারীকে গ্রেপ্তার করে। পরে জিজ্ঞাসাবাদে তাদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী উদ্ধার করা হয় ইমনের বস্তাবন্দী লাশটি। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

জানা যায়, গত ২৯ জানুয়ারি সন্ধ্যায় নিজ বাড়ির সামনে থেকে অপহরণ হয় ইমন। অপহরণ করার পর পরিবারের কাছে ২ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে অপহরণকারীরা। এ ঘটনার ৫ দিন পর অপহৃত ইমনের মা ফেরদৌসি বেগম বাদী হয়ে ৫ জনের বিরুদ্ধে বন্দর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

আসামিরা হলেন- ইমনের চাচা পিয়ার হোসেন, ফুফাতো বোন সাহার বানু, বোনের জামাই জসিমউদ্দিন, চাচাতো ভাই নুর আলম ও মাসুম।

এ মামলার এজাহারভুক্ত আসামি চাচা পিয়ার হোসেন ও ফুফাত বোন সাহার বানুকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে। অপহরণের ৫ দিন পর্যন্ত মুক্তিপণ দাবি করলেও আসামি গ্রেপ্তার হলে আর মুক্তিপণ দাবি করেনি অপহরণকারীরা।

পরে মোবাইল ফোন ট্র্যাকিং করে আলামিন, শাহজাহান আলী ও সাইদুর রহমান নামের ৩ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে সকালে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

কেএফ