‘ছাত্রলীগের উৎপাতে পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে’

0
56
হাবিপ্রবি

হাবিপ্রবিদিনাজপুর হাজী দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের উৎপাত ও শিক্ষক লাঞ্ছিতের প্রতিবাদে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকগণ প্রতিবাদ সভা ও মৌন মিছিল করেছে। একই দাবিতে প্রগতিশীল কর্মকর্তা ফোরামও প্রতিবাদ সভা করেছে।

বুধবার বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় মৌন-মিছিল ও ভিআইপি কনফারেন্স কক্ষে এক জরুরী সাধারণ সভায় মিলিত হন তারা।

বৈঠকে ছাত্রলীগের বিভিন্ন কর্মকান্ডের তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়।

সভায় শিক্ষকরা জানান, ছত্রলীগের উৎপাত ও সন্ত্রাসের কারণে শিক্ষকদের পিঠ এখন দেয়ালে ঠেকে গেছে। দোষী ছাত্রদের বিরূদ্ধে ব্যবস্থা না নিলে বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ বিঘ্নিত হবে। সভা শেষে ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর মো. রুহুল আমিনের কাছে লিখিত স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

এর আগে প্রগতিশীল শিক্ষক ফোরামের সহ-সভাপতি প্রফেসর ড. মো. আনিস খান এবং সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ড. বলরাম রায় এর নেতৃত্বে ১২০ জন শিক্ষক ফোরামের একটি দল মৌন মিছিল নিয়ে ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে।

জানা গেছে, গত মঙ্গলবার হাবিপ্রবি’র মাইক্রোবাইলোজি বিভাগের প্রভাষক মো. আতিকুল ইসলামকে ছাত্রলীগের ক্যাডাররা মারধর ও লাঞ্ছিত করে। তার অপরাধ ছিল-পরীক্ষা চলাকালীন সময় তার কক্ষে কোন পরীক্ষার্থীকে নকল করার সুযোগ না দেওয়া। এছাড়া হাবিপ্রবির পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক শাখার প্রোগ্রামার সাজ্জাত হুমায়ুন কবীরকে ওই ছাত্ররা গোপনে নম্বর বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য চাপ দেয়। কিন্তু তিনি তাতে রাজি না হওয়ায় তারা হুমায়ুনকে বেদম প্রহার করে।

এতে সভাপতিত্ব করেন, হাবিপ্রবি প্রগতিশীল কর্মকর্তা পরিষদের সভাপতি ও ভাইস চ্যান্সেলরের পিএস ফেরদৌস আলম। উৎপাতকারী ছাত্ররা এই সভার কথা জানতে পেরে সেখানেও হামলা চালায় এবং কর্মকর্তাদের অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে।

সাকি/