বাণিজ্য সম্প্রসারণে টাস্কফোর্স গঠন করবে সরকার: মন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

0
58
বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। ছবি: মহুবার রহমান

হালাল পণ্যের ব্যবসাসহ সব ধরনের পণ্যের উৎপাদন বৃদ্ধি, পণ্যের বহুমুখীকরণ এবং বাণিজ্য সম্প্রসারণে টাস্কফোর্স গঠন করা হবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।

আজ মঙ্গলবার সচিবালয়ে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডস্ট্রিজের (ডিসিসিআই) নতুন কমিটির সদস্যদের সঙ্গে বৈঠকে এ কথা জানান মন্ত্রী। বৈঠকে ডিসিসিআই প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন সংগঠনটির নব নির্বাচিত সভাপতি আবুল কাশেম খান।

বৈঠক শেষে বাণিজ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, অর্থ মন্ত্রণালয়, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, এফবিসিসিআই, ডিসিসিআই, ডিএমসিসিআইসহ ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে একটি টাস্কফোর্স গঠন করা হবে। হালাল পণ্যের ব্যবসাসহ সব ধরনের পণ্যের উৎপাদন বৃদ্ধি, পণ্যের বহুমুখীকরণ এবং বাণিজ্য সম্প্রসারণে কাজ করবে এ টাস্কফোর্স।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের পাটপণ্য রপ্তানির ক্ষেত্রে ভারতের অ্যান্টি ডাম্পিং শুল্ক আরোপ দুঃখজনক। বাংলাদেশকে তামাক ও মদ ছাড়া সব পণ্য রপ্তারিতে ডিউটি ও কোটা ফ্রি সুবিধা দেয় ভারত। অথচ পাটপণ্য রপ্তানিতে অ্যান্টি ডাম্পিং শুল্ক আরোপ করেছে। অনেক পণ্য রপ্তানির উপর শতকরা সাড়ে ১২% হারে কাউন্টার ভেলিং শুল্ক নিচ্ছে। ফলে বাংলাদেশে তৈরি পণ্য ভারতে রপ্তানির ক্ষেত্রে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে।

DCCI Commerce Minister-17.01.2017
সচিবালয়ে বাণিজ্যমন্ত্রীর তোফায়েল আহমেদের সঙ্গে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডস্ট্রিজের (ডিসিসিআই) নতুন কমিটির সদস্যদের বৈঠক শেষে ফটোসেশন।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, ভারতের সঙ্গে আলোচনায় বিষয়টি তুলে ধরেছে বাংলাদেশ। বিষয়টি নিয়ে আবারও ভারতের সঙ্গে আলোচনা করা হবে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অর্থনৈতিক, সামাজিকসহ সব ক্ষেত্রে দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে দেশ। ২০০৫-০৬ অর্থ বছরে আমাদের মাথাপিছু আয় ছিল ৫৪৩ মার্কিন ডলার; এখন তা ১ হাজার ৪৬৬ মার্কিন ডলার হয়েছে। জিডিপি প্রবৃদ্ধির হার ৭ দশমিক ১১ শতাংশে অবস্থান করছে; যা অর্থবছর শেষে ৭ দশমিক ৫ শতাংশ হবে। দারিদ্রের হার ২০০৬ সালে ছিল ৩৮ দশমিক ৪ শতাংশ, এখন তা ২৩ দশমিক ২ শতাংশে নেমে এসেছে। ২০০৬ সালে দেশে অতি দরিদ্র মানুষ ছিল ২৪ দশমিক ২ শতাংশ; বর্তমানে তা ১২ দশমিক ৯ শতাংশে নেমে এসেছে। ২০০৬ সালে স্বাক্ষরতার হার ছিল ৫২ দশমিক ৩ শতাংশ; বর্তমানে তা ৬৩ দশমিক ২ শতাংশে উন্নীত হয়েছে।

ওই সময় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের  সিনিয়র সচিব হেদায়েতুল্লাহ আল মামুন উপস্থিত ছিলেন।

অর্থসূচক/আজম/এমই/