হাজার বছর পরে ফিরে এসেছে ঘাতক

0
34
virus

virusপ্রায় ৩০ হাজার বছর পর জেগে উঠেছে এক ঘাতক। সাইবেরিয়ার ভূগর্ভস্থ হিমায়িত অঞ্চলের ৩০ মিটার নিচে থেকে ভাইরাসটিকে সম্প্রতি আবিষ্কার করেছেন ফ্রান্সের বিজ্ঞানীরা। পিথোভাইরাসের গোত্রভুক্ত এই ভাইরাসটি মানুষের জন্য ক্ষতিকারক না হলেও অণুজীব অ্যামিবার প্রাণঘাতী। তবে ভাইরাসটির দেখানো পথে অন্যদের প্রত্যাবর্তনের শংকা ভাবিয়ে তুলেছে বিজ্ঞানীদের। খবর বিবিসির।

ফ্রান্সের এইক্স মারসেইলি বিশ্ববিদ্যালয়ের ন্যাশনাল সেন্টার অব সায়েন্টিফিক রিসার্চ (সিএনআরএস) জানায়, ভাইরাসটি এই পর্যন্ত আবিষ্কৃতদের মধ্যে বৃহত্তম এবং এর দৈর্ঘ্য প্রায় ১ দশমিক ৫ মাইক্রো মিটার।

সিএনআরএস জানায়, সাইবেরিয়া থেকে উদ্ধারের পর গবেষণাগারে পুনরায় অ্যামিবার উপর সফল আক্রমণ চালিয়েছে ভাইরাসটি।

সিএনআরএস আরও জানায়, ভাইরাসটির জীবনচক্র এ্যামিবার মত। তাই এটি ধ্বংস করা সম্ভব নয়। তবে ভাইরাসটিও মানুষের কোষ ধ্বংস করতে পারবে না।

বিজ্ঞানীদের ধারণা, সাইবেরিয়ার হিমায়িত অঞ্চলে ভাইরাসটির গোত্রভুক্ত কোনো মানবঘাতক লুকিয়ে থাকতে পারে, যা পরবর্তীতে ফিরে আসার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেয়া যাচ্ছে না। কেননা, পোষক দেহের বাইরে সীমাহীন ঘুমন্ত জীবন কাটাতে পারে যে কোন ভাইরাস। সাম্প্রতিক কালে বিশ্ব উষ্ণায়নের জন্য সাইবেরিয়ার বরফ গলে এই ক্ষতিকর ভাইরাস অবমুক্ত হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন তারা।