পেঁয়াজের কেজি ১০ টাকা, প্রভাব নেই খুচরা বাজারে

0
31
পেঁয়াজ

OLYMPUS DIGITAL CAMERAপেঁয়াজের কেজি ১০ টাকা শুনলে অনেকে হয়তো আঁতকে উঠবেন, আঁতকে উঠার কিছু নেই, মুজিবনগর মেহেরপুরের হলান পেঁয়াজ ১০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে পাইকারি বাজারে। তবে ক্রেতাদের অভিযোগ কোথায় এ মেহেরপুরের হলান পেঁয়াজ, যার কেজি ১০ টাকা। তাহলে কি এ পেঁয়াজ অন্য পেঁয়াজের সাথে মিশিয়ে বেশি দামে বিক্রি করা হচ্ছে এমন প্রশ্ন সবার।

রাজধানীর খুচরা বাজার গুলোতে ২৫ থেকে ৩০ টাকার নিচে কোনো পেঁয়াজ মিলছে না। পেঁয়াজের খুচরা ব্যবসায়ীরা ১০ টাকা কেজি পাইকারি বাজারে পাওয়া যাচ্ছে তা রীতিমত অস্বীকার করে চলেছে। তবে তাদের দাবি বেশি দাম দিয়ে কেনা হয় তাই এমন দামে বিক্রি করতে হচ্ছে।

দেশের সর্ব বৃহৎ পাইকারি বাজার শ্যামবাজারে দেখা গেছে, মেহেরপুরের এই হলান পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১০ টাকা কেজি দরে। এছাড়া বাজারে দেশি অন্য নতুন পেঁয়াজ ১৭ থেকে ১৮ টাকা কেজি, ভারতের নাসিক পেঁয়াজ ২১ থেকে ২২ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

শ্যামবাজার নবীন ট্রেডার্সের পরিচালক নারায়ণ শাহা বলেন, মেহেরপুরের পেঁয়াজের ভালো ফলন হয়েছে। যে কারণে বাজারে পেঁয়াজের দাম এখন কম। এখন  মেহেরপুরের পেঁয়াজ বাজারে আছে, থাকবে বৈশাখ মাস পর্যন্ত। এর পর উঠবে ফরিদপুর অঞ্চলের পেঁয়াজ। মোট কথা এখন পেঁয়াজের কোন সংকট নেই।

তবে বাজারে হলানের পেঁয়াজ পাওয়া যাচ্ছে না কেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, কেন পাওয়া যাচ্ছে না সেটা আমরা পাইকারি ব্যবসায়ীরা কিভাবে বলব। আমরা তো ১০ টাকা দরে বিক্রি করছি এসব পেঁয়াজ।

তিনি বলেন, এ বিষয়টা মনিটিরিং করা উচিৎ, কেন খুচরা বাজারে পাওয়া যাচ্ছে না হলানের এ পেঁয়াজ।

খুচরা পেঁয়াজ ব্যবসায়ী মো. আবদুল বারেক বলেন, আমরা খুচরা ব্যবসায়ীরা অনেক সময় পাইকারি বাজারে না গিয়েই লোকাল বাজার থেকে কিনে বিক্রি করছি। সুতারং তার উপর নির্ভর করে আমাদের বিক্রি করতে হচ্ছে।

তার কাছে পাইকারি বাজারে হলান পেঁয়াজের দামের কথা জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে আমার জানা নেই।

মাসুমা আফরিন নামের এক ক্রেতার কাছে জানতে চেয়েছিলাম মেহেরপুরের হলান পেঁয়াজ চেনেন কিনা, তার উত্তরে তিনি বলেন, এ ধরনের কোনো পেঁয়াজ বাজারে আছে কিনা আমার জানা নেই।

তবে এর দাম শুনে সে অবাক কেমন করে ১০ টাকার পেঁয়াজ ২৫ থেকে ৩০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। এক্ষেত্রে ব্যবসায়ীদের কারসাজিকে দায়ি করলেন এই  ক্রেতা। তার সাথে সাথে এ বিষয় মনিটরিং এরও জোর দাবি জানান তিনি।

এসএস/সাকি