হিমোফেলিয়া রোগীদের বিশেষ ভাতার আশ্বাস তথ্যমন্ত্রীর

0
61
enu

enuহিমোফেলিয়া রোগীদের সাহায্য করতে তাদেরকে পরিচয়পত্র প্রদান, বিশেষ ভাতার ব্যবস্থা, প্রতিবন্ধি কোটায় অন্তূর্ভুক্তিকরণ এবং বিশেষ স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থপনা চালু করার বিষয়টি সংসদে উত্থাপন করা হবে বলে জানালেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে হিমোফেলিয়া অ্যান্ড হেলথ কেয়ার ট্রাস্ট আয়োজিত ‘হিমোফেলিয়া রোগী ও তার মানবাধিকার- প্রেক্ষিত বাংলাদেশ’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন।

ইনু বলেন, অনিরাময়যোগ্য এই রোগটি সম্পর্কে দেশের মানুষকে সচেতন করে তুলতে হবে। তাই গণমাধ্যমের সাহায্য নিয়ে হিমোফেলিয়া রোগীদের নিয়ে ব্যাপক প্রচারণা চলাতে হবে। আর এই প্রচারণা চালানোর জন্য হিমোফেলিয়া হেলথ কেয়ার ট্রাস্ট এবং হিমোফেলিয়া কল্যাণ ট্রাস্টকে বড় ভূমিকা পালন করতে হবে বলে জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, হিমোফেলিয়া রোগটি অনিরাময়যোগ্য হলেও উপযুক্ত স্বাস্থ্য ব্যবস্থা গ্রহণের মাধ্যমে একজন রোগীকে সুস্থ এবং কর্মক্ষম মানুষ হিসেবে বেড়ে ওঠার সুযোগ দেওয়া সম্ভব। আর এই সুযোগের ব্যবস্থা করা সরকারের দায়িত্ব

অনুষ্ঠানে সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী প্রমোদ মানকিন বলেন, হিমোফেলিয়া অত্যন্ত ভয়াবহ একটি রোগ। এই রোগ প্রতিরোধে সামাজিক সচেতনতা গড়ে তুলতে হবে।

তিনি বলেন, সরকার একা সব কাজ করতে পারে। বেসরকারি উদ্যোগে দেশে প্রচুর কাজ হয়ে থাকে। তাই সরকারি উদ্যোগের পাশাপাশি বেসরকারি সাহায্য আসলে এই রোগ মোকাবেলা করা এবং সচেতনতা তৈরি করা সহজ হবে।

আলোচনা সভায় মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন হিমোফেলিয়া অ্যান্ড হেলথ কেয়ার ট্রাস্টের ট্রাস্টি ডা. এম এইচ লেলিন। সভায় উপস্থিত ছিলেন- হিমোফেলিয়া অ্যান্ড হেলথ কেয়া ট্রাস্টের চেয়ারম্যান মো: তোফাজ্জল হোসেন, ট্রাস্টি মোহাম্মদ আবু তাহের, ট্রাস্টি এবং খ্রীস্টান এসোসিয়েশনের মহাসচিব নির্মল রোজারিও, অ্যাডভোকেট মাহবুবুল আলম, হিমোফেলিয়া কল্যাণ সমিতির সভাপতি আব্দুল মজিদ ফকির প্রমুখ।

জেইউ/কেএফ