রাগবেন তো মরবেন

0
43
angry-man

angry-manঅনিয়ন্ত্রিত রাগ হৃদরোগের ঝুঁকি বাড়ায়। শুধু তাই নয় এক্ষেত্রে স্ট্রোকের মত ঘটনাও ঘটতে পারে। আর এই অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতি এড়ানোর জন্য স্বদিচ্ছাই যথেষ্ট। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের গবেষকরা এ কথা জানিয়েছেন।

নয়টি গবেষণায় জড়িত হাজারেরও বেশি কেস স্টাডি থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে একথা জানান গবেষকরা। তাদের মতে, যত বেশি রাগবেন, তত বেশি ঝুঁকি বাড়বে। দীর্ঘস্থায়ী চাপ হৃদরোগের ঝুঁকি বাড়ার সাথে সাথে রক্তচাপও বাড়ায়।

গবেষকরা জানান, এক্ষেত্রে দিনের মধ্যে পাঁচবার রাগের ঘটনা ঘটলে উচ্চ রক্তচাপে ভুগছেন এমন প্রতি ১০ হাজার জনে ৬৫৭ জন হৃদরোগে আক্রান্ত হয়। আর নিম্ন রক্তচাপে আক্রান্তদের ক্ষেত্রে এই মাত্রা প্রায় ১৫৮ জন।

মানুষ রাগের পর প্রায় দুই ঘন্টা সময়কে তারা বিপদজনক মুহূর্ত বলে চিহ্নিত করেছেন । তারা জানিয়েছেন, এ সময়ের মধ্যে হৃদরোগের ঝুঁকি পাঁচ গুণ বেড়ে যায় আর স্ট্রোকের ঝুঁকি বেড়ে যায় তিনগুণ।

গবেষকরা জানান, রাগের কারণ কেন ঝুঁকিপুর্ণ এর সঠিক ব্যাখ্যা তারা খুঁজে পাননি। তবে তারা বলেছেন, যারা স্বভাবতই অতিরিক্ত রাগী, তাদের ক্ষেত্রে ঝুঁকি অন্যদের চাইতে বেশি।

অতিরিক্ত রাগ এবং অনিয়ন্ত্রিত রক্তচাপের হাত থেকে বাঁচতে একটি ইচ্ছাই যথেষ্ট বলে জানিয়েছেন গবেষকরা। তারা জানান, নিয়মিত ধ্যান এবং রাগ নিয়ন্ত্রণের অভ্যাস রপ্ত করে নিজেকে সহজেই ঝুঁকিমুক্ত রাখা সম্ভব।