নির্বাচনের দায়িত্ব সরকার সমর্থকদের ওপর: রিজভী

0
43
বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল ববির রিজভীউপজেলা নির্বাচনে ভরাডুবির পর পরবর্তী উপজেলা নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রিজাইডিং অফিসারদের সরিয়ে সরকার দল সমর্থনকারীদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ।

সোমবার বিকেল ৪টায় রাজধানীর নয়াপল্টনস্থ বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলের পক্ষ থেকে করা এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব অভিযোগ করেন।

রিজভী বলেন, উপজেলা নির্বাচনের ফলাফল নিজেদের ঘরে তুলতে ব্যর্থ হয়ে সরকার কাণ্ডজ্ঞান হারিয়ে ফেলেছে। তাই প্রধানমন্ত্রী আগামি নির্বাচনগুলোতে আরও কঠোর হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

এটা কি ধরনের কঠোর হওয়ার নির্দেশ সাংবাদিকদের কাছে এমন প্রশ্ন তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রীর কড়া সমালোচনা করে তিনি বলেন, কেন্দ্র দখল, জাল ভোট প্রদান, প্রিজাইডিং অফিসার ও এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়া, বিরোধী প্রার্থীদের মারধর করাসহ নির্বাচনে ব্যাপক অনিয়ম, এত কিছুর পরেও প্রধানমন্ত্রী আরও কি ধরনের কঠোর হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন তা দেখার জন্য জাতি এখন উৎগ্রীব হয়ে আছে।

‘নাশকতাকারীদের হাত-পা কাটা হবে’ আওয়ামী লীগের সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিমের এমন বক্তব্যের কড়া সমালোচনা করে তিনি বলেন, নির্বাচনে পরাজিত হওয়ায় তারা এখন হাত-পা কেটে দেওয়ার কথা বলছেন। বিরোধী দল সরকার পতন আন্দোলনে গেলে তারা কি নির্দেশ দিবেন তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

এ সময় সরকারের প্রতি অভিযোগ করে তিনি বলেন, আগামি ১৫, ২৩ ও ৩১ মার্চে যেসব উপজেলায় নির্বাচন হবে সেগুলো থেকে দায়িত্বরত প্রিজাইডিং অফিসারদের সরানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তাদের স্থলে নিজেদের দলের সমর্থিত ব্যক্তিদের দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে।এ ধরনের চক্রান্ত জনগণ কোনোভাবেই মেনে নেবে না।

এ সরকারকে দেশ ছেড়ে পালাতে হবে সরকারের প্রতি এমন হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করে তিনি বলেন, তাদের মনে রাখা উচিত প্রতিটি রক্তবিন্দু থেকেই বিপ্লবীদের জন্ম হয়। জনগণের আন্দোলন কখনো ব্যর্থ হয় না। আর যারা এ ধরনের হুমকি-ধমকি দেয় তাদেরকে একদিন না একদিন জনগণের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে। নয়তো দেশ ছেড়ে পালাতে হবে।

আওয়ামী লীগই হচ্ছে জঙ্গিদের উৎপাদন ক্ষেত্র এমন দাবি করে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের  আমলেই জঙ্গি তৎপরতা বেড়ে যায়। পরে তারা উদোর পিণ্ডি বুধোর ঘাড়ে চাপায়।

এ সময় সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব মো. শাহাজাহান ও সালাউদ্দিন আহমেদ প্রমুখ।

এমআর