দ্বিতীয় দিনেও সূচক ও লেনদেন কমেছে

0
32
stock_exchange

stock_exchangeসপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যবিবসেও সূচক পতনের মধ্যে দিয়ে  উভয় বাজারে লেনদেন শেষ হয়েছে। সোমবার সকালে  সূচকের উর্দ্ধগতিতে লেনদেন শুরু হলেও বারোটার পর থেকে ধীরে ধীরে কমতে থাকে সূচকের গতি।এই দিন ডিএসইএক্স সূচক কমেছে ১০ পয়েন্ট।  ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেওয়া বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ার দর কমেছে।

বিশ্লেষকদের মতে,বাংলাদেশ ব্যাংকের দেওয়া খেলাপি ঋণের পুন:তফসিলকে বেশিরভাগ ব্যাংক অপব্যবহার করেছে। তারা আগামিতে ব্যাংকের ব্যালান্সশীট ভালো দেখানোর জন্য ঋণ পুন:তফসিল করেছে। কিন্তু আগামি দিনে ব্যবসায় ভালো না করতে পারলে ব্যাংকগুলোকে ঋণের বোঝা টানতে হবে।এসব কারণেই বিনিয়োগকারীদের আস্থায় ফাটল ধরছে। ঘুরে দাঁড়াতে পারছে না পুজিঁবাজার।

দিনশেষে ডিএসইএক্স সূচক অবস্থান করছে ৪ হাজার ৬৮৭ পয়েন্টে। ডিএসইএস সূচক এক পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে এক হাজার ১পয়েন্টে। ডিএস৩০ সূচক আগের দিনের মত অবস্থান করছে ১ হাজার ৭০২ পয়েন্টে।

ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২৯৬টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১০৪টির কমেছে ১৭১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২১টির।

আজকে ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেওয়া শীর্ষ দশ কোম্পানি হচ্ছে,স্কয়ার ফার্মা,বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানি লিমিটেড,গ্রামীণ ফোন,অলিম্পিক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড,যমুনা অয়েল,ফার্মা,বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন,মেঘনা পেট্রোলিয়াম,হাইডেলবার্গ সিমেন্ট,পদ্মা অয়েল এবং ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড।

এদিকে  অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সিএসই সার্বিক সূচক ১৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৯ হাজার ১৭৭ পয়েন্টে। লেনদেন হয়েছে ২৩০টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৬৬টির কমেছে ১৩৮টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৬টির।

এসএ/