আগামি বছরেই সাবমেরিন কিনবে সরকার

0
53
hasina

hasina_marc1আগামি বছরের মধ্যে নৌবাহিনীর জন্য দুটি সাবমেরিন কেনার পাশাপাশি নৌঘাঁটি ও অবকাঠামো নির্মাণ করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার চট্টগ্রাম বন্দর ঘাঁটিতে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে যুদ্ধজাহাজ ‘আবু বকর’ ও ‘আলী হায়দার’ উদ্বোধন ও কমিশনিং অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, মিয়ানমারের মতো ভারতের সাথেও সমুদ্রসীমা বিরোধ মামলায় বাংলাদেশ জয়ী হবে। তাই দেশের বিশাল সমুদ্রসীমা রক্ষায় নৌবাহিনীকে ত্রিমাত্রিক একটি বাহিনীতে পরিনত করা হবে। বাংলাদেশের সমুদ্রসীমা রক্ষায় নৌবাহিনীকে আরো বেশী দক্ষতার সাথে কাজ করতে হবে । সমুদ্রসীমা ও দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায়  এ দুটি জাহাজ নিয়ে বর্তমান সরকার ১২ টি যুদ্ধজাহাজ ক্রয় করেছে বলে জানান তিনি।

সকালে প্রধানমন্ত্রী একটি হেলিকাপ্টার যোগে চট্টগ্রাম পতেঙ্গার ঈশা খাঁ জেটিতে এসে  পৌছান। এসময় নৌ বাহিনীর একটি বিশেষ দল প্রধানমন্ত্রীকে গার্ড অব অর্নার দেন। পরে নেভাল ফ্লোটিলা জেটিতে চীন থেকে কেনা এ জাহাজ দুটি উদ্বোধন করেন। ফলে বাংলাদেশ নৌবাহিনীতে সরাসরি যুক্ত হলে এ যুদ্ধ জাহাজ দুটি।

জানাযায়, জিয়াংহু-৩ ক্লাসের মিসাইল ফ্রিগেট দুটির দৈর্ঘ্য ১০৩ দশমিক ২২ মিটার এবং প্রস্থে ১০ দশমিক ৮৩ মিটার। আধুনিক ক্ষমতাসম্পন্ন জাহাজ দুটি বিমান বিধ্বংসী কামান, জাহাজ বিধ্বংসী মিসাইল ও সমুদ্র তলদেশে সাবমেরিনের সনাক্তকরণসহ সুনির্দিষ্ট লক্ষ্যে আঘাত হানতে সক্ষম।

উল্লেখ্য, এর আগে জাহাজ দুটি ৯ জানুয়ারী চীনের কিংদাউ  বন্দর থেকে  যাত্রা করে ২৭ জানুয়ারী চট্টগ্রাম বন্দরে এসে পৌছায়।

সফরসূচি অনুসারে এর পরে প্রধানমন্ত্রী সাতকানিয়ায় সহিংসতায় ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে চেক হস্তান্তর করবেন বলে  জানা গেছে।