মাদারীপুরে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত- ৬, আটক ৬

0
40

madaripur-28-02-14-2-1মাদারীপুর সদর উপজেলার কেন্দুয়া ইউনিয়নের ঘটকচর গ্রামে বৃহস্পতিবার রাতে ও শুক্রবার দুপুরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দফায় দফায় দুই গ্রুপের সংর্ঘষে ৬ জন আহত হয়েছে। এই ঘটনায় পুলিশ ৬ জনকে আটক করেছে। এ সময় উভয় গ্রুপ ১০টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। এছাড়াও ঘরবাড়ি ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করেছে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করায় সেখানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

পুলিশ, স্থানীয়, হাসপাতাল ও আহত সূত্রে জানা গেছে, সদর উপজেলার কেন্দুয়া ইউনিয়নের ঘটকচর গ্রামের আরশেদ হাওলাদারের ছেলে দেলোয়ার হাওলাদারের সাথে একই গ্রামের ফজলু মাতুব্বার ছেলে আরিফ মাতুব্বর দীর্ঘদিন ধরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে তাদের মাঝে দ্বন্দ্ব চলছিল দীর্ঘদিন ধরে।
এরই জের ধরে বৃহস্পতিবার দুপুরে দুই জনের মাঝে কথাকাটি হয়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওইদিন রাতে দুই গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও ককটেল বিস্ফোরণ হয়।
এরই জের ধরে পরের দিন শুক্রবার দুপুরে ওই দুই গ্রুপের মধ্যে ফের সংর্ঘষ বাঁধে। এ সময় প্রায় ২০টি ঘর ভাংচুর ও লুটপাট, ১০টি ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।
এতে উভয় গ্রুপের কমপক্ষে ৫ জন আহত হয়। আহতরা হলেন দেলোয়ার হাওলাদার (২৮), সুমন মতুব্বার (২৫), জাহিদ ফকির (৩০), সবুজ মতুব্বার (২২), নাসির (২৫) ও ইমন (১২)। তাদের মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এসময় পুলিশ ৬ জনকে আটক করেছে। এছাড়াও ঘটনাস্থল থেকে ১২টি স্টিলের ঢাল, ২৫টি কাতরা, ৭টি রানদাসহ দেশিয় অস্ত্র উদ্ধার করেছে। এলাকায় উত্তেজনা থাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন আছে।
মাদারীপুর সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) আবু বক্কর সিদ্দিক জানান, আমিসহ একাধিক পুলিশফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করি। ঘটনাস্থল থেকে ৬ জনকে আটক ও দেশিয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছ। পরিস্থিতি এখন শান্ত রয়েছে।