নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করলে সব উপজেলায় আ. লীগের জয় হতো: বাণিজ্যমন্ত্রী

0
35
tofayel

tofayelনির্বাচনে হস্তক্ষেপ করলে সব উপজেলায় আওয়ামী লীগ জয় হতো বলে মন্তব্য করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।

শুক্রবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে বাংলাদেশ কৃষকলীগ আয়োজিত ‘২১শে ফেব্রুয়ারি আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস’  শীর্ষক এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

প্রশাসন নিরপেক্ষ ছিল দাবি করে মন্ত্রী বলেন, উপজেলা নিবাচনে বিএনপির অংশগ্রহণ আর প্রার্থীদের জয়ের চিত্রই প্রমাণ করে প্রশাসন নিরপেক্ষ ছিল।

তিনি বলেন, প্রশাসন নিরপেক্ষ না হলে সব উপজেলায় আ.লীগ সমর্থিত প্রার্থীরা বিজয়ী হতো। বিএনপি একটা উপজেলায়ও জয়ী হতে পারতো না।

বিএনপির কঠোর সমালোচনা করে মন্ত্রী বলেন, একদিকে বিএনপি বিজয়ী হয় অন্যদিকে প্রতিদিন প্রেস কনফারেন্স করে বলে নির্বাচনে কারচুপি করা হচ্ছে। হেরে যাওয়ার আগ পযন্ত এত মিথ্যা কথা কিভাবে বিএনপি বলে তা আমাদের জানা নেই।

দ্বিতীয় দফা নির্বাচনে আ.লীগের ভরাডুবি সম্পর্কে মন্ত্রী বলেন, উপজেলা নির্বাচন আর জাতীয় নিবার্চন এক নয়। স্থানীয় সরকার নির্বাচনে দলীয় প্রাথী কাজে আসে না। স্থানীয় মানুষ দল নয়, ব্যক্তি দেখে ভোট দেয়।

বিএনপি নীতিবান রাজনৈতিক দল নয় এমন অভিযোগ করে মন্ত্রী বলেন, আ.লীগের অধীনে উপজেলা নিবাচন প্রমাণ করে আ.লীগের অধীনেও নিবার্চন নিরপেক্ষ হয়। জাতীয় নিবার্চনে বিএনপি অংশগ্রহণ করলেও তার প্রমাণ পেতো।

নির্বাচনে প্রশাসন নিরপেক্ষ ছিল দাবি করে তিনি বলেন, প্রশাসন নিরপেক্ষ না হলে বিএনপির কোনো চেয়ারম্যান নিবাচিত হতো না।

বিএপির শাসনামলে ইউনিয়ন নিবার্চনে আ.লীগ প্রার্থীদের অংশগ্রহণ করতে দেয়নি এমন অভিযোগ তুলে তোফায়েল বলেন, বিএনপির উপজেলা নির্বাচনে অংশগ্রহণ প্রমাণ করে জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করে তারা বড় ধরনের ভুল করেছে।

সংগঠনের সভাপতি মোতাহার হোসেন মোল্লার সভাপতিত্বে এ সময় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের সাধারণ-সম্পাদক অ্যাডভোকেট সেকান্দার সামছুল হক, সহ-দপ্তর সম্পাদক নাজমুল ইসলাম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকী প্রমুখ।

জেইউ