মাদারীপুরে তিন প্রার্থীর নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা

0
70
madaripur

madaripurমাদারীপুরের শিবচর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ ৩ প্রার্থী। উপজেলা পরিষদের সামনে নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শনকালে পুলিশের সাথে ব্যাপক ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ গুলি ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করেছে।  এ সময় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৪ জনকে আটক করেছে।

নির্বাচন কেন্দ্রে এজেন্ট প্রবেশ করতে না দেওয়া ও সমর্থকদের মারধোর করার অভিযোগ এনে শিবচরে বিএনপি সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. খলিলুর রহমান চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী শহীদ খান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সুহাদা বেগম নির্বাচন বর্জন করার ঘোষণা দেয়।

পরে  ১১টার দিকে কর্মী সমর্থকদের নিয়ে উপজেলা পরিষদের সামনে মিছিল সমাবেশ করতে থাকে। সে সময় পুলিশের সাথে বাক-বিতন্ডার এক পর্যায়ে বিএনপি নেতা কর্মীদের  সাথে ব্যাপক সংর্ঘষ বেধে যায়। বিএনপি নেতা-কর্মীরা ইট পাটকেল ছুড়ে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ২৪ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ৪ জনকে আটক করেছে। সে সময় শিবচর থানার ওসিসহ ৭ জন আহত হয়েছে।

বিএনপি সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. খলিলুর রহমান চৌধুরী বলেন, আমাদের এজেন্টদের কেন্দ্রে প্রবেশ করতে বাধা দেয় ও আমাদের সমর্থিত নেতা-কর্মীদের মারধর করে ভোট দিতে বাধা প্রদান করে। এর প্রতিবাদে আমরা নির্বাচন বর্জন করি।

মাদারীপুর পুলিশ সুপার খোন্দকার ফরিদুল ইসলাম বলেন, নির্বাচনের দিন সকল প্রকার বিক্ষোভ সমাবেশ নিষিদ্ধ কিন্তু বিএনপি সমর্থকরা বিক্ষোভ মিছিল বের করায় আমরা তাদের নিষেধ করতে গেলে সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়। সংঘর্ষে শিবচর থানার ওসিসহ ৭জন আহত হয়।