মান্দায় আ.লীগ কার্যালয়ে বিদ্রোহী প্রার্থীর তালা

0
46
Naogaon Aleag office e tala

Naogaon Aleag office e talaচেয়ারম্যান পদে দলীয় সমর্থন বঞ্চিত হয়ে নওগাঁর মান্দা উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছেন সাধারণ-সম্পাদক সরদার জসিম উদ্দিন।

বুধবার বেলা ১১টার দিকে কার্যালয়ের প্রধান গেটে তালা দিয়ে চাবি নিয়ে চলে যান তিনি। এতে নেতা-কর্মীরা কার্যালয়ে প্রবেশ করতে না পেরে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

জানা গেছে, তৃতীয় দফার নির্বাচনে এ উপজেলায় তিনটি পদেই উপজেলা আওয়ামী লীগের একাধিক প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। কেন্দ্রীয় নির্দেশে একক প্রার্থী সিলেকশনের জন্য উপজেলা আওয়ামী লীগ গত শনিবার রেবা আখতার আলিম মাদরাসা চত্বরে তৃণমুল নেতা-কর্মীদের নিয়ে এক বিশেষ বর্ধিত সভার আহবান করে। সেখানে সমঝোতা বৈঠক ব্যর্থ হলে তৃণমুল নেতা-কর্মীদের ভোটের মাধ্যমে প্রার্থী সিলেকশনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। চেয়ারম্যান পদে উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এসএম ব্রহানী সুলতান মাহমুদ গামা ১৪৮ ভোট ও সাধারণ-সম্পাদক সরদার জসিম উদ্দিন পান ১০২ ভোট। এছাড়া, নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিউটি রানী ২৪৪ ভোট ও রোকেয়া বেগম পান ৭০ ভোট।

তৃণমুলের ভোটে পরাজিত হলেও সাধারণ-সম্পাদক সরদার জসিম উদ্দিন মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেননি। দলীয় সিদ্ধান্ত উপক্ষো করে গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। গত মঙ্গলবার জেলা নির্বাচন অফিস থেকে তাকে দোয়াত-কলম প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এ অবস্থায় আজ বুধবার বেলা ১১টার দিকে হঠাৎ করেই দলীয় কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে চাবি নিয়ে চলে যান তিনি।

দলীয় সমর্থিত প্রার্থী ব্রহানী সুলতান গামা জানান, কার্যালয়ে তালা লাগানো থাকায় ভেতরে প্রবেশ করতে পারেন নি। নেতা-কর্মীদের নিয়ে তিনি কার্যালয়ের সামনে বেশকিছু সময় অপেক্ষার পর সেখানে থেকে ফিরে যেতে বাধ্য হন। সাধারণ-সম্পাদকের এ কর্মকান্ডের নিন্দা জানিয়ে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি।

ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী এমদাদুল হক ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান বিউটি রানী এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, বিষয়টি দলীয় হাইকমান্ডকে অবহিত করা হয়েছে।

এদিকে আওয়ামী লীগ কার্যালয় দিনভর তালাবদ্ধ থাকায় নেতা-কর্মীরা ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বলেন, অবিলম্বে কার্যালয়ের তালা খুলে দেওয়া না হলে অপ্রীতিকর ঘটনার আশঙ্কা রয়েছে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ-সম্পাদক সরদার জসিম উদ্দিন দলীয় কার্যালয়ে তালা ঝুলানো ও চাবি নিয়ে যাবার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। তার বিরুদ্ধে রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র চলছে বলে দাবি করেন তিনি। জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বী বকু জানান, দলীয় কার্যালয়ে তালা দেওয়া ঠিক হয় নি। এটি দলীয়-শৃঙ্খলা ভঙ্গও বটে।