রাজশাহীতে আগামিকাল ভোট, সব প্রস্তুতি সম্পন্ন

0
56
rajshahi

rajshahiআগামিকাল রাজশাহীর বাঘা উপজেলায় দ্বিতীয় দফায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। মঙ্গলবার শেষ প্রচারণায় উত্তাল ছিল পুরো উপজেলা। এরইমধ্যে ভোটগ্রহণের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে জেলা নির্বাচন কমিশন।

জেলা নির্বাচন অফিসার সাইফুল ইসলাম জানান, আজ বুধবার দুপুরের মধ্যে উপজেলার সব কেন্দ্রে ভোটের উপকরণ পৌঁছে দেওয়া হবে। তিনি জানান, এ উপজেলায় মোট ভোটার সংখ্যা ১,২৯,১৮২। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ৬৪,৮৫৬ ও মহিলা ভোটার ৬৪,৩২৬। মোট ৪৯টি ভোট কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

তিনি আরও জানান, নির্বাচনী আচরণবিধিসহ আইন-শৃংখলা পরিস্থিতি দেখতে চারজন ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। নির্বাচনী এলাকায় সেনা ও বিজিবি সদস্যদের সমন্বয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করবেন। ইতোমধ্যে নিরাপত্তা দিতে নির্বাচনী এলাকায় মাঠে নেমেছে সোনাবাহিনী ও বর্ডার গার্ড  বাংলাদেশ (বিজিবি)। স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে মঙ্গলবার বিকেল থেকে উপজেলায় অবস্থান নেয় সেনা ও বিজিবি সদস্যরা।

বাঘা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সমিত কুমার জানান, উপজেলায় ৪৯টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে ১৫টি কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এসব কেন্দ্রে বাড়তি নিরাপত্তা থাকবে বলে জানান তিনি।

এদিকে জেলা প্রশাসনের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ উপজেলায় যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বাঘা উপজেলায় ২৬ ফেব্রুয়ারি দিবাগত রাত ১২টা থেকে ২৭ ফেব্রুয়ারি মধ্যরাত ১২টা পর্যন্ত বেশকিছু যানবাহন চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। ওই সময়ে উপজেলায় বেবিট্যাক্সি, অটোরিকশা, ইজিবাইক, ট্যাক্সি ক্যাব, মাইক্রোবাস, পিকআপ, জিপ, কার, বাস, ট্রাক ও টেম্পু চলাচল করতে পারবে না। এছাড়া মোটরসাইকেল চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

এ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক আজিজুল আলম (আনারস), বিএনপির মনোনীত প্রার্থী অধ্যাপক জাহাঙ্গীর হোসেন (ঘোড়া) বিএনপির বিদ্রোহী উপজেলা যুবদলের সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মামুন (দোয়াত কলম) ও জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি বিদ্রোহী প্রার্থী আব্দুল গনি মণ্ডল (মোটরসাইকেল) এবং  উপজেলা জামায়াতের আমির মাওলানা জিন্নাত আলী (কাপ-পিরিজ)।

অপরদিকে পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে আ.লীগ মনোনীত বাবুল ইসলাম (টিউবওয়েল), বিদ্রোহী হাসমত আলী (মাইক), বিএনপির দলীয় প্রার্থী মোকলেসুর রহমান মুকুল (চশমা), বিদ্রোহী প্রার্থী শাহিন মণ্ডল (তালা), ইসরাফিল হোসেন স্বতন্ত্র প্রার্থী (বাল) ও শফিউর রহমান শফি জাসদ ইনু (টিয়াপাখি) প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন।

নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে আ.লীগ মনোনীত জয়জয়ন্তী সরকার (ফুটবল), বিদ্রোহী প্রার্থী ফাতেমা খাতুন লতা পেয়েছেন (কলস) ও বিএনপির একক প্রার্থী ফারহানা রুমি (প্রজাপতি) নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন।

কেএফ