স্লোগানে মুখর বোয়ালমারী, হিসাব কষেই ভোট দিবেন ভোটাররা

0
80
upojela nirbachon

upojela nirbachonআগামি ২৭ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় দফায় ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলা পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আর তাই এ উপজেলায় দিনরাত জুড়ে চলছে প্রচার প্রচারণা। প্রার্থীরা ভোটারদের প্রতি দিচ্ছেন নানা প্রতিশ্রুতি। অপরদিকে ভোটাররাও কষছেন পুরোনো হিসাব-নিকাশ।

নানা ধরনের স্লোগানে মুখর ফরিদপুরের বোয়ালমারী, নগরকান্দা আর সালথা উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চল। এই উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ১৯ দলীয়জোট ও আওয়ামী লীগের সমর্থিত প্রার্থীর পাশাপাশি জামায়াত প্রার্থীরা অংশ নিচ্ছেন। চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এ উপজেলায় আওয়ামী লীগ একক প্রার্থী দিতে সমর্থ হলেও ব্যর্থ হয়েছে বিএনপি। বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন একেএম জামাল উদ্দিন নান্নু মিয়া। আর এই সুযোগকে কাজে লাগাতে চায় আওয়ামী লীগ।

বিএনপি মনোনীত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মো. সিদ্দিকুর রহমান বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু হলে অবশ্যই জয়লাভ করবো। এ সময় তিনি তার কর্মীদের পুলিশ দিয়ে হয়রানির অভিযোগ তোলেন।

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী বলেন, বিজয়ী হলে নির্যাতিত নারীদের পাশে থেকে কাজ করবো।

আ.লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মো. মোশাররফ হোসেন বলেন, এবছর উপজেলা পরিষদ বাড়তি দ্বায়িত্ব পাওয়ায় নির্বাচিতদের পক্ষে জনসাধারণের চাহিদা মেটানো সম্ভব হবে।

জনগণের স্বতস্ফুর্ত অংশগ্রহণে নির্বাচন সুষ্ঠু হবে বলে প্রত্যয় ব্যক্ত করে ভাইস-চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মো. মিজানুর রহমান মৃধা মিলন বলেন, নির্বাচিত হলে সংশ্লিষ্ট উপজেলাকে সুশৃঙ্খল ও ডিজিটাল হিসেবে গড়ে তোলা হবে।

আর ভোটারদের মতে, এ উপজেলায় জাতীয় নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেননি ভোটাররা। তাই উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোট দিতে পারবে বলে বেশ উৎসাহ লাগছে।

সহকারি রিটার্নিং অফিসার ও বোয়ালমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সহিদুজ্জামান বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু করতে এরই মধ্যে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রগুলোতে নেওয়া হয়েছে বাড়তি ব্যবস্থা।

ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার নির্বাচনে ৭৬টি কেন্দ্রে এক লাখ ষাট হাজার ৯৮ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করে বেছে নেবেন যোগ্য নেতা।

কেএফ